1. admin@bangla24bdnews.com : b24bdnews :
  2. robinmzamin@gmail.com : mehrab hossain provat : mehrab hossain provat
  3. maualh4013@gmail.com : md aual hosen : Md. Aual Hosen
  4. tanvirahmedtonmoy1987@gmail.com : shuvo khan : shuvo khan
সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ০৮:৫২ অপরাহ্ন

খুলনার রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকলে বকেয়া ২৭ কোটি টাকা

স্টাফ রিপোর্টার (বাংলা ২৪ বিডি নিউজ):
  • আপডেট সময় : বুধবার, ৮ জানুয়ারী, ২০২০
  • ২২১

খুলনা অঞ্চলের রাষ্ট্রায়ত্ত নয় পাটকলের শ্রমিক-কর্মচারী ও কর্মকর্তাদের মজুরি ও বেতন বকেয়া পড়েছে ২৭ কোটি ১৮ লাখ ২৭ হাজার টাকা।

শ্রমিকদের ছয় সপ্তাহের মজুরি এবং কর্মচারীদের দুমাস ও কর্মকর্তাদের কোন কোন মিলের তিন মাসের আবার কোনো মিলের দুই মাসের বেতন বকেয়া পড়েছে।

এদিকে, আর্থিক সংকটের কারণে পাটকলগুলোর শ্রমিক-কর্মচারী ও কর্মকর্তাদের মজুরি ও বেতন নিয়মিত পরিশোধ করা সম্ভব হচ্ছে না বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্টরা।

প্লাটিনাম জুট মিলের ব্যাচিং বিভাগের শ্রমিক মোল্লা ফরিদ জানান, আন্দোলন চলাকালে আমাদের ১০ সপ্তাহের মজুরি পরিশোধ করা হয়। এরপর আর কোন মজুরি দেয়া হয়নি। এখনো ৬ সপ্তাহের মজুরি বকেয়া রয়েছে।

ক্রিসেন্ট জুট মিলের সিবিএ সাবেক সভাপতি মো. মুরাদ হোসেন জানান, বছরের শুরুতে টাকার প্রয়োজন হয় বেশি। ছেলে মেয়েদের স্কুলে ভর্তি, ড্রেস বানানোসহ লেখাপড়ার জন্য অনেক খরচ রয়েছে। এছাড়া বাজার-ঘাট, চিকিৎসার ব্যয় সব মিলিয়ে আর্থিক সংকট রয়েছে। এ অবস্থায় নিয়মিত মজুরি না পাওয়ায় দুর্দশায় পড়তে হচ্ছে।

পাটকলগুলোর সূত্রে জানা যায়, নয় পাটকলে ২৮ হাজার মেট্রিকটন উৎপাদিত পণ্য অবিক্রিত অবস্থায় রয়েছে। গত ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত খালিশপুর, দৌলতপুর, ক্রিসেন্ট, প্লাটিনাম, স্টার, আলীম, ইস্টার্ণ, জেজেআই ও কার্পেটিং জুট মিলে এসব পণ্য মজুদ রয়েছে। পণ্যগুলো বিক্রি না হওয়ায় আর্থিক সংকটের মধ্যে পড়তে হচ্ছে এসব পাটকলের। ফলে যেমন প্রয়োজনীয় পাটক্রয়েও হিমসিম খেতে হচ্ছে।

তেমনই শ্রমিক, কর্মচারী ও কর্মকর্তাদের নিয়মিত মজুরি ও বেতন পরিশোধ করা সম্ভব হচ্ছে না। গত ২ জানুয়ারি পর্যন্ত এসব পাটকলের শ্রমিকদের ১৭ কোটি ৪৯ লাখ ৮০ হাজার টাকার মজুরি বকেয়া পড়েছে। একই সঙ্গে কর্মচারী ও কর্মকর্তাদের নয় কোটি ৬৮ লাখ ৪৭ হাজার টাকার বেতন বকেয়া পড়েছে।

এর মধ্যে আলীম জুট মিলের শ্রমিকদের ৮৩ লাখ ৫৯ হাজার টাকার মজুরি ও কর্মচারী-কর্মকর্তাদের ৩৯ লাখ ৩৮ হাজার টাকার বেতন, কার্পেটিং জুট মিলের শ্রমিকদের ৫৭ লাখ ৪২ হাজার টাকার মজুরি এবং কর্মচারী ও কর্মকর্তাদের ৪৯ লাখ ৮ হাজার টাকার বেতন, ক্রিসেন্ট জুট মিলের শ্রমিকদের ৩ কোটি ৯২ লাখ ৬৪ হাজার টাকার মজুরি এবং কর্মচারী ও কর্মকর্তাদের ১ কোটি ৭২লাখ ৫ হাজার টাকার বেতন, দৌলতপুর জুট মিলের শ্রমিকদের ২৩ লাখ ৭৫ হাজার টাকার মজুরি এবং কর্মচারী ও কর্মকর্তাদের ৫১ লাখ ৫৮ হাজার টাকার বেতন, ইস্টার্ণ জুট মিলের শ্রমিকদের ১ কোটি ৪০ লাখ ১৯ হাজার টাকার মজুরি এবং কর্মচারী ও কর্মকর্তাদের ৮১ লাখ ৫৯ হাজার টাকার বেতন, জেজেআই জুট মিলের শ্রমিকদের ২ কোটি ৩৪ লাখ ৩৮ হাজার টাকার মজুরি এবং কর্মচারী ও কর্মকর্তাদের ৯৩ লাখ ৯৫ হাজার টাকার বেতন, খালিশপুর জুট মিলের শ্রমিকদের ১ কোটি ৭০ লাখ ৫৬ হাজার টাকার মজুরি এবং কর্মচারী ও কর্মকর্তাদের ১ কোটি ৪৯ লাখ ২ হাজার টাকার বেতন, প্লাটিনাম জুট মিলের শ্রমিকদের ৩ কোটি ৭৩ লাখ ৪২ হাজার টাকার মজুরি এবং কর্মচারী ও কর্মকর্তাদের ১ কোটি ৯০ লাখ ৮২ হাজার টাকার বেতন এবং স্টার জুট মিলের শ্রমিকদের ২ কোটি ৭৩ লাখ ৮৫ হাজার টাকার মজুরি এবং কর্মচারী ও কর্মকর্তাদের ১ কোটি ৪১ লাখ টাকার বেতন বকেয়া রয়েছে।

বিজেএমসির আঞ্চলিক কর্মকর্তা মো. বনিজ উদ্দিন মিঞা জানান, পাটকলগুলোতে আর্থিক সংকট রয়েছে। এছাড়া উৎপাদিত পণ্য মজুদ থাকায় শ্রমিক-কর্মচারীদের নিয়মিত মজুরি পরিশোধ করাও সম্ভব হচ্ছে না। বিজেএসসির প্রধান কার্যালয়ে বিষয়টি অবহিত করা হয়েছে।

ফেসবুকে আমরা

এ বিভাগের আরও সংবাদ
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.bangla24bdnews.com কর্তৃক সংরক্ষিত
Customized By NewsSmart