1. admin@bangla24bdnews.com : b24bdnews :
  2. tanvirahmedtonmoy1987@gmail.com : shuvo khan : shuvo khan
মঙ্গলবার, ০৭ এপ্রিল ২০২০, ০৪:৫৬ অপরাহ্ন

জালকুড়িতে অগ্নিকান্ডের ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গিয়ে ইউএনও নাহিদা বারিক যা বললেন

স্টাফ রিপোর্টার (বাংলা ২৪ বিডি নিউজ):
  • আপডেট সময় : বুধবার, ২৫ মার্চ, ২০২০
  • ৫১ জন সংবাদটি পড়েছেন

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের পশ্চিম জালকুড়ি বারিধারা আবাসিক এলাকায় বুধবার ভোরে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে পুড়ে গেছে ঝুটের ৭টি গোডাউন। এতে প্রায় ২ কোটি টাকার মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে গেছে বলে মালিক পক্ষ দাবি করেছেন। স্থানীয়দের ধারণা বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটেছে।
এদিকে অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে ছুটে যান নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার নাহিদা বারিক। কারণ করোনভারাইস প্রতিরোধে যাতে অগ্নিকান্ডের ঘটনাস্থলে লোকসমাগম ঘটতে না পারে এজন্য তিনি তড়িৎ ব্যবস্থা নেন। এসময় তিনি অগ্নিকান্ডের ঘটনাস্থলে ভীড় করা উৎসুক জনতাকে দ্রুত সরিয়ে দেন। হ্যান্ড মাইকে তিনি এলাকারবাসীর উদ্দেশ্যে বলেন, এখন পর্যন্ত যারা বাহিরে আছেন, আপনাদের অনুরোধ করছি। আপনাদের প্রিয় সন্তানগুলোকে নিয়ে বাসার ভেতরে যান। আগুন নেভানোর কাজ ফায়ার সার্ভিস করছে। এই দুর্যোগ মুহুর্তে করোনা ভাইরাস ছড়াচ্ছে আপনারা শুনতেছেন, তারপরও কেন আপনি আপনার প্রিয় সন্তানকে নিয়ে এখানে দাড়িয়ে আগুন নেভানোর কাজ দেখতে হবে? আমরা বার বার অনুরোধ করছি, আমরা কিন্তু এখন বাধ্য করবো আপনাকে ঘরের ভেতর যাওয়ার জন্য। আপনারা যার যার ঘরের ভেতর থাকেন। ফায়ার সার্ভিস তাদের কাজ করছে। একটা লোকও আপনারা বাহিরে থাকবেন না। সবাই ঘরে যান। পরে তিনি অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থদের সাথে কথা বলে তাদের শান্তনা দেন। এদিকে আগুন পুরোপুরি নিয়ন্ত্রনে আসার পর করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে অগ্নিকান্ডের ঘটনাস্থল ও রাস্তায় সদর উপজেলার পক্ষ থেকে ব্লিচিং পাউডার মিশ্রিত পানি ছিটানো হয়েছে। যাতে জীবাণূ না ছড়ায়।

উল্লেখ্য আদমজী, ফতুল্লা, হাজিগঞ্জ ও মন্ডলপাড়া থেকে ফায়ার সার্ভিসের ৮টি ইউনিট আগুন নেভানোর কাজ করে। ঢাকা থেকে আগত ৪ জন ফায়ার সার্ভিসের কর্মীসহ ৪০ জন কর্মী কাজ করে। এ ঘটনায় কোন হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপ সহকারি পরিচালক আব্দুল্লাহ আল আরেফিন জানান, ‘আমরা ঘটনাস্থলে আসার পৌনে এক ঘন্টার মধ্যে আগুন নিয়ন্ত্রনে নিয়ে আসি। তবে বেলা ১২টার দিকে আগুন সম্পুর্নরূপে নিয়ন্ত্রনে আসে।

ঝুট ব্যবসায়ীদের মালিক সমিতির সভাপতি জুয়েল প্রধান জানান, আগুনে শাহআলমের মালিকানাধীন মেসার্স গাজী ট্রেডার্সের ৩০ লাখ, কাজল বাহাদুর মালিকানাধীন মেসার্স ভাই ভাই এন্টারপ্রাইজের ১৫ লাখ, রাজ্জাক ও সজিব মালিকানাধীন রিসাইকেলের ৬০ লাখ, সেলিম মালিকানাধীন মেসার্স মায়ের দোয়া ট্রেডার্সের ১২ লাখ, মিন্টুর মালিকানাধীন মামা ভাগিনা এন্টারপ্রাইজের ৫০ লাখ, রবিন মালিকানাধীন আল ফারাহ এন্টারপ্রাইজের ২০ লাখ ও জাহাঙ্গীর মালিকানাধীন অনিক-অন্তর এন্টারপ্রাইজের ৫ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

ফেসবুকে আমরা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরও সংবাদ
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.bangla24bdnews.com কর্তৃক সংরক্ষিত
Customized By NewsSmart