1. admin@bangla24bdnews.com : b24bdnews :
  2. robinmzamin@gmail.com : mehrab hossain provat : mehrab hossain provat
  3. maualh4013@gmail.com : md aual hosen : Md. Aual Hosen
  4. tanvirahmedtonmoy1987@gmail.com : shuvo khan : shuvo khan
শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০, ০৪:২২ অপরাহ্ন
সদ্য সংবাদ
কাঁচপুর থেকে অপহৃত গৃহবধূকে ঢাকায় ৬দিন আটেকে রেখে ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ১ পেটের ব্যথা সইতে না পেরে উল্লাপাড়ায় বীর মুক্তিযোদ্ধার আত্মহত্যা দৃশ্যমান হলো পদ্মা সেতুর ৫ হাজার ২৫০ মিটার বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে কৃষকলীগের নতুন কমিটির শ্রদ্ধা ওসি-ডিসিরা অভিযোগ না শুনলে আমার কাছে আসুন : ডিএমপি কমিশনার আবারো ৭ কলেজের শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে নামার হুঁশিয়ারি সুনামগঞ্জে শ্বশুরবাড়িতে স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যা নারায়ণগঞ্জে মসজিদ ট্রাজেডি : কমিটির সভাপতি গফুর গ্রেপ্তার ধর্ষণসহ নারী নিপীড়নের প্রতিবাদে ডুমুরিয়া পল্লীসমাজের মানববন্ধন ফায়ার সার্ভিসের ১৩ ইউনিটের চেষ্টায় কল্যাণপুর বস্তির আগুন নিয়ন্ত্রণে

ভোটার তালিকা হালনাগাদে সময় বাড়িয়ে বিল পাস

স্টাফ রিপোর্টার (বাংলা ২৪ বিডি নিউজ):
  • আপডেট সময় : রবিবার, ২৬ জানুয়ারী, ২০২০
  • ১১৫

ভোটার তালিকা হালনাগাদ করার সময়সীমা ৩০ থেকে বাড়িয়ে ৬০দিন করে ‘ভোটার তালিকা (সংশোধন) আইন-২০২০’ নামে একটি বিল জাতীয় সংসদে পাস করা হয়েছে।

রোববার (২৬ জানুয়ারি) জাতীয় সংসদের অধিবেশনে আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বিলটি পাসের প্রস্তাব উত্থাপন করলে তা কণ্ঠভোটে পাস হয়।

এ সময় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন। অধিবেশনে বিলটি পাসের আগে এটি জনমত যাচাই-বাছাই কমিটিতে পাঠানোর প্রস্তাব দেন বিরোধী দল জাতীয় পার্টি ও বিএনপি দলীয় সংসদ সদস্যরা।

এ বিষয়ে আলোচনায় অংশ নেন জাতীয় পার্টির রওশন আরা মান্নান এবং বিএনপির মো. হারুনুর রশীদ ও ব্যারিষ্টার রুমিন ফারহানা। বিরোধী দলীয় সদস্যদের প্রস্তাব কণ্ঠভোটে নাকচ হয়ে যায়।

পাস হওয়া বিলে ভোটার তালিকা আইনের ১১ ধারার ১ উপধারা সংশোধনের প্রস্তাব করা হয়েছে। এতে জাতীয় ভোটার দিবসের সঙ্গে মিল রেখে কম্পিউটার ডাটাবেজে সংরক্ষিত বিদ্যমান ভোটার তালিকা হালনাগাদ করার সময়সীমা প্রতিবছর ২ থেকে ৩১ জানুয়ারির পরিবর্তে ‘২ জানুয়ারি থেকে ২ মার্চ’ প্রতিস্থাপন করা হয়েছে।

বিলটি আইনে পরিণত হলে ভোটার তালিকা হালনাগাদ করার সময়সীমা ৬০দিন হবে।

গত ২০ জানুয়ারি জাতীয় সংসদে বিলটি উত্থাপনের পর তা অধিকতর পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়। কমিটি পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে বিলটি পাসের সুপারিশ করে গত ২৩ জানুয়ারি সংসদে প্রতিবেদন জমা দেয়।

ফেসবুকে আমরা

এ বিভাগের আরও সংবাদ
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.bangla24bdnews.com কর্তৃক সংরক্ষিত
Customized By NewsSmart