1. admin@bangla24bdnews.com : b24bdnews :
  2. robinmzamin@gmail.com : mehrab hossain provat : mehrab hossain provat
  3. maualh4013@gmail.com : md aual hosen : Md. Aual Hosen
  4. tanvirahmedtonmoy1987@gmail.com : shuvo khan : shuvo khan
মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২১, ০৩:৩৫ অপরাহ্ন
সদ্য সংবাদ
নতুন স্কুল না করে বাকিগুলো জাতীয়করণের দাবিতে মানববন্ধন রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করলেন প্রধানমন্ত্রী করোনায় সারাদেশে ২৪ ঘন্টায় আরও ১৬ জনের মৃত্যু নড়াইলে শিশুদের চিত্রাঙ্কন ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত ধর্ষণ মামলার প্রতিবেদনে গরমিল: সিভিল সার্জন-এসপিকে হাইকোর্টে তলব `ভোট ডাকাতি করে ক্ষমতাসীনরা পৌরসভা দখল করেছে ‘ পৌরসভা নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক হয়নি : মাহবুব তালুকদার সান্তাহার পৌরসভা তৃতীয়বারের মতো মেয়র হলেন বিএনপির ভুট্টু মোংলা পোর্ট পৌরসভায় মেয়রসহ ১৩ কাউন্সিলর প্রার্থীর ভোট বর্জন নড়াইল ও কালিয়া পৌর নির্বাচনে আ’লীগের দুই বিদ্রোহী প্রার্থীকে বহিষ্কার

সাড়ে ৪ লাখ টাকা মাস্কের দাম

ডেস্ক রিপোর্ট (বাংলা ২৪ বিডি নিউজ):
  • আপডেট সময় : সোমবার, ১৩ জুলাই, ২০২০
  • ২০০

বিশ্বব্যাপী মানুষের এখন অন্যতম প্রয়োজনীয় জিনিস মাস্ক। করোনাভাইরাসের কারণে অন্ন-বস্ত্রের মতো মাস্ক এখন নিত্যদিনের অংশ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

মাস্কের এই প্রয়োজন মেটাতে ব্যবসায়ীরা মাস্কের নিত্যনতুন  ডিডাজাইন নিয়ে আসছেন। মাস্কের নকশায় ভিন্নতা আনছে কোম্পানিগুলো। ‌মাস্ক ব্যবহার যেহেতু দীর্ঘমেয়াদি হচ্ছে তাই ব্যবহারকারীরাও এখন আকর্ষণীয় ও সুন্দর মাস্ক খুঁজছেন।

মাস্কে ভিন্নতা আনতে প্রচলিত কোম্পানির সঙ্গে পাল্লা দিতে মাঠে নেমেছে জুয়েলারি দোকানগুলোও। তারা মাস্ক তৈরিতে সোনা, রূপা, হীরাসহ দামি পাথর পর্যন্ত ব্যবহার করছেন। এতে করে একদিকে মাস্কগুলো যেমন দৃষ্টিনন্দন হচ্ছে, তেমনি লাফিয়ে লাফিয়ে তার দামও বাড়ছে।

কিছুদিন আগে ভারতের পুনের এক ব্যক্তি সোনার মাস্ক পরে সবাইকে চমকে দেন। শঙ্কর কারাডে নামের ওই ব্যক্তির সোনার মাস্কের দাম পড়েছে তিন লাখ রুপির বেশি।

এবার শঙ্করের মাস্ককে টেক্কা দিতে আরো এক ধাপ এগিয়ে গেছে ভারতের গুজরাটের একটি জুয়েলারি দোকান। তারা হীরা বসানো মাস্ক তৈরি করছেন। মাস্ক তৈরিতে দুই ধরণের হীরা ব্যবহার করছেন। প্রতিটি মাস্কের দাম ধরা হয়েছে ১ লাখ ৭০ হাজার থেকে ৪ লাখ ৫২ হাজার টাকা।

ওই দোকানের মালিক দীপক চোকসি ওরিশা পোস্টকে জানান, কয়েকদিন আগে তার দোকানে এক ক্রেতা এসে বর-কনের জন্যে অভিনব মাস্ক তৈরি করে দেওয়ার কথা বলেন। এরপর এই মাস্ক তৈরি শুরু করেন। মাস্ক তৈরির পর ওই ক্রেতা দুটি মাস্ক নিয়ে যান। তবে ক্রেতার আপত্তির কারণে ওই দুটি মাস্কের দাম প্রকাশ করা হয়নি।

পরবর্তীতে এ ধরণের আরো মাস্ক তৈরির পরিকল্পনা আছে বলে ওরিশা পোস্টকে জানিয়েছেন দীপক। কারণ লকডাউন পুরোপুরি তুলে দিলে সামনের দিনে এই ধরণের মাস্কের চাহিদা বাড়বে বলে মনে করেন তিনি।

যথাযত স্বাস্থ্যবিধি মেনে এই মাস্ক তৈরি হচ্ছে কিনা? এমন প্রশ্নের জবাবে দীপক জানান, মাস্কগুলো হীরার তৈরি হলেও সরকারি নির্দেশনা মেনেই তৈরি করা হয়েছে। এর মাধ্যমে করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধ সম্ভব বলে জানান তিনি। এখন দেখার বিষয় ক্রেতা সাধারণের মাঝে কতটা সাড়া ফেলে সাড়ে ৪ লাখ টাকার এই মাস্ক।

 

ফেসবুকে আমরা

এ বিভাগের আরও সংবাদ
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.bangla24bdnews.com কর্তৃক সংরক্ষিত
Customized By NewsSmart