1. admin@bangla24bdnews.com : b24bdnews :
  2. robinmzamin@gmail.com : mehrab hossain provat : mehrab hossain provat
  3. maualh4013@gmail.com : md aual hosen : Md. Aual Hosen
  4. tanvirahmedtonmoy1987@gmail.com : shuvo khan : shuvo khan
রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০২:১৭ পূর্বাহ্ন

‘স্মার্ট আ’লীগ’ গঠনের চ্যালেঞ্জ কাদেরের

স্টাফ রিপোর্টার (বাংলা ২৪ বিডি নিউজ):
  • আপডেট সময় : শনিবার, ২১ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ১৮৯

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে আওয়ামী লীগের দেওয়া ইশতেহার বাস্তবায়নের সঙ্গে স্মার্ট ও শক্তিশালী আওয়ামী লীগ গঠন করার চ্যালেঞ্জ নিয়ে সামনে এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন নব নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

শনিবার আওয়ামী লীগের ২১তম জাতীয় সম্মেলনে দ্বিতীয় বারের মত দলের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ার পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় এ প্রত্যয় ব্যক্ত করেন তিনি।

রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগর সভাপতির রাজনৈতিক কার্য‌্যালয়ে আনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়া দেন ওবায়দুল কাদের।

টানা তৃতীয়বার সরকার গঠনের পরপরই দ্বিতীয় মেয়াদে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ার পর কোনো চ্যালেঞ্জ থাকছে কি না জানতে চাইলে ওবায়দুল কাদের বলেন, “মূল প্রতিশ্রুতি হচ্ছে আমাদের নির্বাচনী ইশতেহার। আমাদের নেত্রী নির্বাচনের আগে এ দেশের জনগণের কাছে যে অঙ্গীকার করেছেন- ইশতেহারের মাধ্যমে সেই নির্বাচনী ইশতেহারে, প্রতিটি গ্রামকে শহর, প্রত্যেক পরিবারে একজনের কর্মসংস্থান নিশ্চিত করাসহ আরো কিছু অঙ্গীকার আছে। এই নির্বাচনী ইশতেহার আগামী নির্বাচনের আগে পূরণ করতে হবে, বাস্তবায়ন করতে হবে এটা আমাদের চ্যালেঞ্জ।

‘এর জন্য আমাদের বিরাট দায়িত্ব পালন করতে হবে। আমরা স্ট্রং টিম লাইন স্পিরিটেড টিম ওয়ার্ক গড়ে তুলব। স্মার্টার আওয়ামী লীগ, আধুনিক আওয়ামী লীগ গড়ে তুলব। ট্রাডিশানের সঙ্গে টেকনোলজি, আইডিয়ালিজমের সঙ্গে রিয়ালিজম, এর মধ্যে একটা ফাইন ব্যালেন্স করে নেত্রীর প্রতিশ্রুতি ভিশন ২০২১ আমাদের লক্ষ‌্য।”

তিনি বলেন, ‘এই কমিটির সামনে সুবর্ণ জয়ন্তী আছে, মুজিববর্ষ শেষ হলেই শুরু হবে সুবর্ণ জয়ন্তী। এরপর রয়েছে ভিশন ২০৪১, এর পর রয়েছে ডেল্টা প্ল্যান। এগুলো আমাদের সভাপতির ওয়াদা, এই ওয়াদা পূরণ করা, বাস্তবায়ন করাই হবে আমাদের চ্যালেঞ্জ।’

গণতন্ত্রকে শক্তিশালী করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, “আমরা আমাদের প্রতিপক্ষকে দূর্বল ভাবি না। আমরা আমাদের দেশের গণতন্ত্রকে এক চাকার বাই সাইকেল মনে করি না, আমরা মনে করি দুই চাকার বাই সাইকেল। গণতন্ত্রকে আমরা শক্তিশালী করতে চাই। সেজন্য বিরোধী দলের প্রতি আমাদের টলারেন্স আছে।

‘আমরা কখনো তাদের কোনো সভা-সমাবেশে প্রতিরোধ করি না। আমাদের পার্টি অফিসের সামনে আমাদের নেতাকর্মীদের আক্রান্ত করেছিল, সেই নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের সময়। তার পরেও আমরা পাল্টা আঘাত করিনি। আমরা সহিষ্ণুতা দেখিয়েছি। বিরোধী দলের প্রতি আমাদের সহিষ্ণুতা থাকবে। তবে যেখানে সহিংসতা থাকবে, তা মোকাবিলা করা হবে। জনগণের জান-মালের স্বার্থে করতে হবে।”

‘আওয়ামী লীগের সম্মেলনে সঙ্কট উত্তরণের দিক-নির্দেশনা নেই বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের’ এমন বক্তব্যের প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে ওবায়দুল কাদের বলেন, “এটা তারা বলবে, কারণ তাদের নিজেদের দলেই নূন্যতম গণতন্ত্র নেই। তারা একটা কমিটি করেছে। যিনি বললেন, ফখরুল সাহেব, তিনি তো আমার এক বছর আগে মহাসচিব হয়েছেন। এখন এটা কত বছরের কমিটি এটা কেউ জানে না, কবে হবে তাদের জাতীয় সম্মেলন। কোন জেলার সম্মেলন হয়েছে, এটা আমরা গত দশ বছরেরও দেখিনি। উপজেলার সম্মেলন, ইউনিয়নের সম্মেলন কি তারা করেছে?

‘একটা কমিটি করেছে সেটাও জাম্বু জেট। সেটার মিটিং একবার শুনেছিলাম লা মেডিরিডিয়ানে, সে এক চরম বিশৃঙ্খলার মিটিং। বিএনপির তো নিজেদের দলেই গণতন্ত্র নেই, তারা গণতন্ত্রের অর্থ তাৎপর্য‌্য কী বুঝবে? ঘরে যাদের গণতন্ত্র নেই তারা দেশে কীভাবে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনবে?”

ফেসবুকে আমরা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরও সংবাদ
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.bangla24bdnews.com কর্তৃক সংরক্ষিত
Customized By NewsSmart