মন্ত্রীকে স্বাগত জানাতে ২ ঘণ্টা বৃষ্টিতে ভিজল শিক্ষার্থীরা

0
15

 গোপালগঞ্জ (বাংলা ২৪ বিডি নিউজ): অবশেষে মন্ত্রী এলেন। ততক্ষণে ভিজে জুবুথুবু কোমলমতি শিক্ষার্থীরা। ১২টা থেকে বৃষ্টি মাথায় দাঁড়িয়ে ছিল তারা। মন্ত্রী এলেন আরও পরে, দুপুর ২টায়। সেই অবস্থায়ও মন্ত্রীকে ফুল ছিটিয়ে বরণ করে তারা। সরকারি নির্দেশনা উপেক্ষা করে গোপালগঞ্জের কোটালিপাড়া উপজেলার টুপুরিয়ায় এ ঘটনা ঘটে।

শনিবার মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোকাম্মেল হকের আগমন উপলক্ষে উপজেলার ওয়েস্ট কোটালীপাড়া ইউনিয়ন ইনস্টিটিউশনের ২শ’ শিক্ষার্থীকে দুপুর ১২টা থেকে ২টা পর্যন্ত দাঁড় করিয়ে রাখা হয়।

এসময় তার সঙ্গে ছিলেন সাবেক মন্ত্রী কাজী ফিরোজ রশিদ এমপি,কোটালীপাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান মুজিবুর রহমান হাওলাদার,উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সুভাষ চন্দ্র জয়ধর,সাধারণ সম্পাদক এস এম হুমায়ুন কবীর,বীরবিক্রম হেমায়েত উদ্দিন,উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার হাজী সরদার আব্দুল মালেক,উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ মিকাইল উপস্থিত।

মোজাম্মেল হক হেমায়েত বাহিনী স্মৃতি হলরুমে হেমায়েত বাহিনী আয়োজিত মুক্তিযোদ্ধা সমাবেশে অংশ নেন।

সমাবেশে মন্ত্রী বলেন,হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মভূমিতে আসতে পেরে আমি গর্বিত। জুলাই মাস থেকে মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা ৮ হাজার টাকা এবং আগামী জানুয়ারি থেকে ১০ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে।

পরে মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক উপজেলা কেন্দ্রিয় শহীদ মিনার চত্বরে মুক্তিযোদ্ধাদের ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করেন।

ওয়েস্ট কোটালীপাড়া ইউনিয়ন ইনস্টিটিউশনের এক শিক্ষার্থী জানায়,হেমায়েত উদ্দিনের লোকজন জোর করে তাদের স্কুল থেকে এনে দাঁড় করিয়ে রাখে। বৃষ্টিতে ভিজে তাদের খুব কষ্ট হয়েছে বলে ওই শিক্ষার্থী জানায়।

রাস্তায় কোমলমতি ছাত্র-ছাত্রীদের দাঁড় করিয়ে রাখার ব্যাপারে কোটালীপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ মিকাল বলেন,আমি শিক্ষার্থীদের রাস্তায় দাঁড় করাতে নিষেধ করেছিলাম। আয়োজকরা আমার কথা অমান্য  করে শিক্ষার্থীদের দাঁড় করায়।

ওয়েস্ট কোটালীপাড়া ইউনিয়ন ইনস্টিটিউশনের প্রধান শিক্ষক মোশারফ হোসেন বলেন,আয়োজকরা জোর করে আমাদের ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়ে দাঁড় করিয়ে রেখেছে।

আয়োজক হেমায়েত বাহিনীর প্রধান বীর বিক্রম হেমায়েত উদ্দিন এ ব্যাপারে নিজেকে ব্যস্ত দাবি করে,মিডিয়ার সঙ্গে কথা বলেতে রাজি হন নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here