সাত খুন : কঠোর প্রহরায় আদালতে ২২ আসামী, বাদীকে হুমকির অভিযোগ

0
4

 নারায়ণগঞ্জ (বাংলা ২৪ বিডি নিউজ): নারায়ণগঞ্জের আলোচিত সেভেন মার্ডারের ঘটনায় দায়ের করা দুটি মামলায় বুধবার অভিযোগ গঠনের শুনানি শেষে আগামী ৬ সেপ্টেম্বর পরবর্তী তারিখ নির্ধারণ করেছেন আদালত। নারায়ণগঞ্জের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম চাঁদনী রূপমের আদালতে এই শুনানির সময় কারাগার থেকে র‌্যাবের সাবেক তিন কর্মকর্তাসহ ২২ আসামিকে কঠোর প্রহরায় আদালতে হাজির করা হয়। পরবর্তী শুনানির দিন র‌্যাবের ৮ সদস্যসহ মামলার পলাতক ১৩ আসামির মালামাল জব্দের নির্দেশনার বিষয়ে সংশ্লিষ্ট থানা-পুলিশকে প্রতিবেদন দাখিল করারও নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।
নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খাঁন জানান, চার্জশীট ভুক্ত ৩৫ আসামীর মধ্যে গ্রেপ্তারকৃত ২২ আসামীকে আদালতে হাজির করা হয়। পলাতক কিন্তু চার্জশীটভুক্ত বাকি ১৩ আসামীকে মামলার তদন্তকারী সংস্থা ডিবি এখনও গ্রেপ্তার করতে পারেনি। বিষয়টি আদালতে জানানো হয়েছে।
তিনি আরো জানান, মামলার প্রধান আসামী নূর হোসেনকে এখনও ভারত থেকে দেশে আনা হয়নি। এ সরকারের ইচ্ছার ঘাটতি রয়েছে। চার্জশীট থেকে আব্যহতি প্রাপ্ত ব্যক্তিরা নিহতের পরিবার গুলোকে হুমকি দিচ্ছে। এতে করে তারা সঙ্কায় আছে।
আদালত প্রাঙ্গণে উপস্থিত মামলার বাদী সেলিনা ইসলাম সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেন, মামলার অভিযোগপত্র থেকে অব্যাহতি পাওয়া কয়েকজন তাকে নানাভাবে হয়রানি করার পাশাপাশি মিথ্যা মামলায় জড়ানোর হুমকি দিচ্ছে।
২০১৪ সালের ২৭ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জ-ঢাকা লিংক রোড থেকে নাসিক কাউন্সিলর নজরুল ইসলাম, আইনজীবী চন্দন সরকারসহ ৭জনকে অপহরন করে র‌্যাব-১১এর একটি টিম। পরে ৩০ এপ্রিল শীতলক্ষ্যা নদীতে ৬ জন ও  ১মে একজনের লাশ ভেসে উঠে। এ ঘটনায় নিহত নজরুলের স্ত্রী সেলিনা বাদী হয়ে একটি এবং আইনজীবী চন্দন সরকারের জামাতা বিজয় কুমার পাল বাদী হয়ে ফতুল্লার মডেল থানায় একটি মামলা করেন। প্রায় এক বছর পর চলতি বছরের ৯ এপ্রিল মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মামুনুর রশিদ মন্ডল নারায়ণগঞ্জের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিমের আদালতে সাত খুনের ঘটনায় ৪নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর (বর্তমানে বরখাস্ত) নূর হোসেন, র‌্যাবের সাবেক তিন কর্মকর্তা লে. কর্নেল (অব্যাহতিপ্রাপ্ত) তারেক সাঈদ মোহাম্মদ, মেজর (অব্যাহতিপ্রাপ্ত) আরিফ হোসেন ও লে. কমান্ডার (অব্যাহতিপ্রাপ্ত) এম এম রানাসহ ৩৫ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র (চার্জশিট) দাখিল করেন। বর্তমানে র‌্যাবের সাবেক তিন কর্মকর্তাসহ ২২ জন কারাগারে আটক রয়েছেন। পলাতক রয়েছেন ১৩ জন। পরে একটি মামলার বাদী নিহত নজরুলের স্ত্রী বিউটি এজাহারভুক্ত ৫ আসামীকে মামলা থেকে অব্যাহতি দেয়ায় চার্জশিট প্রত্যাখান করে আদালতে নারাজি পিটিশন দেয়। শুনানী শেষে ৮ জুলাই আদালত নারাজি পিটিশন নাকচ করে দিয়ে দুটি মামলায় চার্জশিট গ্রহনের আদেশ দেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here