চট্টগ্রামে দুই ধর্ষকের ২ বার যাবজ্জীবন

0
11

চট্টগ্রাম (বাংলা ২৪ বিডি নিউজ): চট্টগ্রাম সাতকানিয়ার দ্বীপ চরতি গ্রামে তরুণীকে অপহরণ ও ধর্ষণের অপরাধে দুই আসামিকে দু’বার করে যাবজ্জীবন অর্থাৎ ৬০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে আসামিদের প্রত্যেককে দেড় লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক রেজাউর করিম মঙ্গলবার বিকেলে এ আদেশ দেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন— সাতকানিয়ার দ্বীপ চরতি গ্রামের বাসিন্দা মৃত মো. হোসেনের ছেলে মো. ইয়াকুব আলী ও মৃত আব্দুল হাসিবের ছেলে মো. মামুন।

আদালতের নথি থেকে জানা যায়, ২০০১ সালের ২১ মে রাত ৮টার দিকে দ্বীপ চরতি গ্রামে প্রতিবেশী তরুণীর বাড়ির সামনে গিয়ে নাম ধরে ডাকে আসামি ইয়াকুব আলী ও মামুন। প্রতিবেশী হিসেবে তরুণদের ডাকে সাড়া দিয়ে ঘরের দরজা খুললে মুখ চেপে ওই তরুণীকে অপহরণ করে নিয়ে যায় তারা। পরে চট্টগ্রাম শহরের জাহেদ বোর্ডিং ও অজ্ঞাতস্থানে তরুণীকে জোরপূর্বক আটকে রেখে আসামিরা কয়েক দফা ধর্ষণ করে।

এ ঘটনায় ২৮ মে তরুণীর ভাই মো. সেলিম বাদী হয়ে দু’জনকে আসামি করে সাতকানিয়া থানায় মামলা করেন। ২০০১ সালের ৩ আগস্ট মামলার তদন্ত শেষে আদালতে চার্জশিট দাখিল করা হয়। ২০০২ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি আদালতে এ বিষয়ে অভিযোগ গঠন করা হয়। ১১ জন সাক্ষীর মধ্যে পাঁচজনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আদালত এ রায় দেন।

নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) জেসমিন আক্তার জানান, দুই আসামির বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের আনা অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় আদালত নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৭ ও ৯(৩) ধারা অনুযায়ী প্রত্যেক আসামিকে দু’বার করে যাবজ্জীবন অর্থাৎ ৩০ বছর করে মোট ৬০ বছরের কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন।

তিনি জানান, রায়ে দু’টি সাজার মেয়াদ একটির পর আরেকটি কার্যকর হবে বলে বিচারক আদেশপত্রে উল্লেখ করেছেন। আসামিরা বর্তমানে হাজতে রয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here