অনেক সনদ পাওয়া মুক্তিযোদ্ধার মায়েরও তখন জন্ম হয়নি-মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী

0
4

চুয়াডাঙ্গা (বাংলা ২৪ বিডি নিউজ) : মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, ‘টাকা খেয়ে মুক্তিযোদ্ধা সনদ দেওয়া হয়েছে। এমন বয়স দেখিয়ে সনদ দেওয়া হয়েছে তখন তার মায়েরও জন্ম হয়নি। আবার মুক্তিযুদ্ধের সময় যে ছেলেটির বয়স ৪-৫ বছর ছিল, তাকেও মুক্তিযোদ্ধা বলে সনদ দেওয়া হয়েছে।’

জেলার দামুড়হুদা উপজেলার কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়নে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের সহযোগিতায় মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন উদ্বোধনের পর মুক্তিযোদ্ধাদের এক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রবিবার দুপুরে তিনি এ কথা বলেন। দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফরিদুর রহমানের সভাপতিত্বে সমাবেশে বিশেষ অতিথি ছিলেন- হুইপ ও চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য সোলায়মান হক জোয়ার্দার ছেলুন এবং চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য আলী আজগার।

মন্ত্রী বলেন, ‘যারা মুক্তিযোদ্ধা বলে চাকরির বয়স বাড়িয়ে নিয়েছেন তাদের সনদ চাইলে কোনো মন্ত্রণালয় থেকে দেওয়া হচ্ছে না। তাহলে বোঝা যাচ্ছে কীভাবে মুক্তিযোদ্ধার সনদ কেনাবেচা হয়েছে।’

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘গণমানুষের সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুক্তিযোদ্ধাদের বিশ্বের অত্যাধুনিক প্রযুক্তিতে তৈরি সনদ ও পরিচয়পত্র দেওয়ার ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে।’

মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী বলেন, ‘এ সরকারকে বিব্রতকর অবস্থায় ফেলতে দুই বিদেশী নাগরিককে হত্যা করা হয়েছে। দেশে বিক্ষিতভাবে আইএস সদস্য থাকতে পারে, কিন্তু তাদের মেরুদণ্ড ভেঙে দেবেন প্রধানমন্ত্রী।’সমাবেশে আরও উপস্থিত ছিলেন- চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক সায়মা ইউনুস, জেলা পরিষদের প্রশাসক মাহফুজুর রহমান মঞ্জু, জীবননগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবু মো. আব্দুল লতিফ অমল ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আয়েশা সুলতানা লাকী, সহকারী পুলিশ সুপার ছুফি উললাহ, আওয়ামী লীগ নেতা সিরাজুল আলম ঝন্টু ও দামুড়হুদা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আছির উদ্দিন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here