বাংলাদেশী মেয়েরা ওয়ানডেতেও হারের বৃত্তে

0
2

ক্রীড়া প্রতিবেদক (বাংলা ২৪ বিডি নিউজ):  পাকিস্তানের বিপক্ষে দুই ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজ হারের পর ওয়ানডেতেও জয়ে ফিরতে পারেনি বাংলাদেশ মহিলা ক্রিকেট দল। রোববার দুই ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথমটিতে পাকিস্তানের মুখোমুখি হয় সালমা-খাদিজা-রুমানারা। চমৎকার ফিল্ডিংয়ে স্বাগতিকদের মাত্র ২১৪ রানে বেঁধে ফেললেও জবাবে ব্যাট করতে নেমে কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌছতে পারেনি তারা।

করাচির সাউথ এন্ড ক্লাব ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাটিং করতে নেমে ৪৯.৫ ওভারে ২১৪ রানে অলআউট হয় পাকিস্তান। বাংলাদেশী মেয়েদের নিয়ন্ত্রীত বোলিংয়ে   নিজেদের ইনিংসকে এর চেয়ে বেশী বড় করতে পারেনি স্বাগতিকরা।

ব্যাট হাতে পাকিস্তানের হয়ে সর্বোচ্চ ৯২ রান করেন বিসমাহ মারুফ। তিন নম্বরে নেমে বেশ দক্ষতার সঙ্গে ব্যাটিং করে যান মারুফ। কিন্তু সেঞ্চুরির পথে থাকা মারুফকে ৮ রানের আক্ষেপে পুড়তে হয়। লতা মন্ডলের বলে তার ইনিংসটি থেমে যায় ৯২ রানে। ১২৮ বলে ৮ বাউন্ডারিতে ইনিংসটি সাজান তিনি। এ ছাড়া নাইন আবিদি ২৭, জাভেরিয়া খান ও নিদা দার ২১ করে রান করেন।

বল হাতে বাংলাদেশের সেরা বোলার সালমা খাতুন। ৩১ রানে ৩ উইকেট নেন তিনি। এ ছাড়া ১টি করে উইকেট নেন লতা মন্ডল, নাহিদা আক্তার, খাদিজাতুল কোবরা ও ফাহিমা খাতুন।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা তত ভালো করতে পারেনি বাংলাদেশ। দলীয় মাত্র ২৫ রানের মাথায় এনাম আমীনের শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরেন ওপেনার শারমিন আক্তার। দলীয় ৩৬ রানের সময় ব্যক্তিগত ২৪ রানে আউট হয়ে মাঠ ছাড়েন আরেক ওপেনার শামীমা সুলতানাও। তবে ১০৪ রানের মধ্যেই ৪ উইকেট হারানো বাংলাদেশকে স্বপ্ন দেখান রুমানা আহম্মেদ।

দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৭০ রানের ইনিংসটি আসে তার ব্যাট থেকেই। রুমানার আউটের পর বাংলাদেশের জয়ের স্বপ্ন অনেকটাই ফিকে হয়ে যায়। শেষপর্যন্ত নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৯৪ রান করতে সমর্থ হয় বাংলাদেশী মেয়েরা। ফলে প্রথম ওয়ানডে ২০ রানের জয় নিয়ে শেষ হাসি হাসে পাকিস্তান।

স্বাগতিকদের হয়ে সর্বোচ্চ ৩টি উইকেট নেন এনাম আমীন। ১টি করে উইকেট পান আসমাভিয়া ইকবাল, সানা মির, নিদা ধার, আলীয়া রিয়াজ এবং বিসমা মারুফ।

আর এ জয়ের ফলে দুই ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে রইল পাকিস্তান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here