আজ: শুক্রবার, ২৪শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং, ১০ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, হেমন্তকাল, ৭ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৩৯ হিজরী, রাত ৯:০০

জলবায়ু সম্মেলন, মানবতার রক্ষাকবচ হবে ব্যবসা!

ডেস্ক সংবাদ (বাংলা ২৪ বিডি নিউজ): চলতি বছর বিগত ১১৫ বছরের মধ্যে উষ্ণতম বছর হিসেবে গণ্য হয়েছে। আর জীবাশ্ম জ্বালানি পোড়ানোর কারণে আগামী বছর প্রথমবারের মতো বায়ুমণ্ডলে কার্বন ডাই-অক্সাইডের গড় ঘনত্ব ৪০০ পিপিএম ছাড়িয়ে যাবে। এ প্রেক্ষাপটে প্যারিসে শুরু হতে যাওয়া জলবায়ু সম্মেলন কোপেনহেগেন সম্মেলনের মতো ভণ্ডুল হলে তা এই গ্রহের একটি বিপর্যয় হিসেবে পরিগনিত হবে। তাই এবারের সম্মেলন নিয়ে আশা নিরাশা দু’টোই কাজ করছে বিশ্বনেতাদের মাঝে। তবে এবার মানবতার রক্ষাকবচ হতে পারে ব্যবসা। অন্তত: ব্লমবার্গের প্রতিষ্ঠাতা মাইকেল ব্লুমবার্গ ও ভার্জিন গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা রিচার্ড ব্রানসন তাই মনে করছেন।
জাতিসংঘ পরিবেশবিষয়ক সম্মেলন (ইউএনসিসিসি)-২০১৫ বা ‘কনফারেন্স অব পার্টিস’ বা কপ-২১ নামে পরিচিত এ সম্মেলন ৩০ নভেম্বর থেকে ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে শুরু হয়ে শেষ হবে ১১ ডিসেম্বর। এর আগে ২০০৯ সালে সর্বশেষ ডেনমার্কের রাজধানী কোপেনহেগেনে বিশ্ব নেতৃবৃন্দের সমন্বয়ে জলবায়ু সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছিল। তবে কার্বন নিঃসরণ কমিয়ে আনা এবং ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার বিষয়ে বিশ্ব নেতারা তর্কযুদ্ধে লিপ্ত হওয়ায় ওই সম্মেলন ভন্ডুল হয়ে যায়।
কপ-২১ সম্মেলন নিয়ে বিশ্ব নেতৃবৃন্দ বেশ উচ্ছ্বসিত। সাম্প্রতিক সময়ে প্যারিস হামলার কারণে এ সম্মলন নিয়ে দ্বিধাদ্বন্দ্ব দেখা দিলেও তা কাটিয়ে উঠেছে বিশ্ব। এ সম্মেলনের গুরুত্ব অনুধাবন করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ‘চরমপন্থীদের ভয় করি না’ প্যারিস সরকারকে এই প্রতিপাদ্য তুলে ধরার অনুরোধ জানিয়ে কপ-২১তে যে কোনো মূল্যে হাজির হওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, আমি মনে করি এটা প্রত্যেক দেশের জন্য জরুরি।
সম্মেলনে ১৯৫টি দেশের গুরুত্বপূর্ণ প্রতিনিধিসহ কমপক্ষে ১৩৫টি দেশের সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধান এবং তদ্সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞ পর্যায়ের প্রায় ৪০ হাজার প্রতিনিধি ফ্রান্সের রাজধানী শহর প্যারিসে উপস্থিত হওয়ার জন্য সমবেত হচ্ছেন।
উল্লেখ্য, বর্তমান বিশ্বের জলবায়ু সমস্যার মূলে রয়েছে কার্বন ডাই-অক্সাইডের মতো ক্ষতিকর গ্রিনহাউস গ্যাস আবহাওয়ামণ্ডলের তাপমাত্রা বাড়িয়ে দিচ্ছে। এর ফলে বাড়ছে সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা, বাড়ছে খরা-ঝড়-বন্যার মতো প্রাকৃতিক দুর্যোগ। তাই কার্বন নিঃসরণ কমিয়ে আনা এবং ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার বিষয়টি আলোচনার মূল প্রতিপাদ্য হতে পারে। যেসব দেশ কার্বন নিঃসরণ না করেও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সে তালিকায় রয়েছে বাংলাদেশও। তাই কোপেনহেগেন সম্মেলনের সিদ্ধান্তের বাস্তবায়ন হিসাবে ক্লাইমে্ট চেঞ্জ ফান্ডের ১০০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের প্রতিশ্রুত বাংলাদেশ অংশের পাওনা নিয়ে দরকষাকষি হতে পারে। বাংলাদেশের মতো অবস্থানে থাকা দেশগুলোও একই দাবিতে সোচ্চার হবে এমনটাই ধারণা করা হচ্ছে।
উন্নত বিশ্বের দেশগুলোতে গ্রিন হাউজ প্রক্রিয়ায় খাদ্যশস্য উৎপাদনের প্রভাব বেশি। তাই তারা সহসা সে পথ ছেড়ে আসবে কি না তা ভাবার বিষয়। বিষয়টি মানবিক বিবেচনায় নিয়েও অতীত সম্মেলনগুলোতে যেহেতু কোনো সফলতা আসেনি তাই এবার বিষয়টিকে ব্যবসায়িক দৃষ্টিকোন থেকে ভাবার উৎসাহ দিচ্ছে কিছু ব্যবসায়ী। তবে তারা সম্মেলনে কতটুকু প্রভাব বিস্তার করতে পারবে তা দেখার বিষয়।
১৯৮৭ সালে জাতিসংঘে ‘আওয়ার কমন ফিউচার’ নামে একটি যুগান্তকারী প্রতিবেদন প্রকাশ করার পর নরওয়ের সাবেক প্রধানমন্ত্রী গ্রো হারলেম ব্রানড্টল্যান্ড বলেছিলেন, ‘অর্থনীতি ও পরিবেশের জন্য আমাদের আঞ্চলিক দৃষ্টিকোণ পরিহার করতে হবে। বিশ্বে একটি ঐক্যবদ্ধ ব্যবস্থা চালুর লক্ষ্যে আমাদেরকে অবশ্যই বর্ধনশীল অর্থনীতির সাথে সাথে পরিবেশগত বিবেচনাও মাথায় রাখতে হবে। এজন্য আমাদের একে অপরের উপর নির্ভরশীল থাকতে হবে।’
আসন্ন কপ’২১ সম্মেলনের প্রাক্কালে নরওয়ের সাবেক প্রধানমন্ত্রীর সে কথা অন্য যেকোনো সময়ের চেয়ে বেশি তাৎপর্যপূর্ণ মনে করা হচ্ছে।
এ সম্মেলনকে সামনে রেখে ভার্জিন গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা রিচার্ড ব্রানসনকে ব্লমুবার্গের প্রতিষ্ঠাতা মাইকেল ব্লুমবার্গ যখন আমাকে ’ব্যবসার জন্য জলবায়ু’ শীর্ষক একটি ধারাবহিক আর্টিকেলের অংশ হওয়ার প্রস্তাব দিলেন, তখন আমি সানন্দেই রাজি হয়ে যাই-বলছিলেন ভার্জিন গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা রিচার্ড ব্রানসন।
তিনি হাফিংটনপোস্টে লিখেছেন, পৃথিবী তখনই জলবায়ু পরিবর্তন সবচেয়ে ভালোভাবে মোকাবেলা করতে পারবে, যখন ব্যবসা মূল ক্রীড়নকের ভূমিকায় থাকবে, উদ্যোক্তাদের সমাধানকে সহজভাবে গ্রহণ করা হবে এবং বিভেদ ও স্বার্থ ভুলে সব মানুষ একসাথে কাজ করবে। এ জন্য আমরা কার্বণ নিঃসরণ কমানোর ব্যবসায়িক উপায় বের করেছি। এ জন্যই আমরা অর্থনীতি ও সমাজের ইতিবাচক পরিবর্তনের লক্ষ্যে ব্যবসায়িক নেতাদের ঐক্যবদ্ধ করার প্রয়াস চালাচ্ছি। এ জলবায়ু সম্মেলনটি মানুষের ইতিহাস পরিবর্তন করে দেওয়া একটি বিরল সুযোগ হতে পারে। আগামী ২০৫০ সালের মধ্যে কার্বন নিঃসরণ শূন্য শতাংশে নামিয়ে আনা এবং একটি স্থায়ী অর্থনীতির লক্ষ্যে বিশ্বনেতারা দীর্ঘমেয়াদি লক্ষ্য ও কর্মপরিকল্পনা হাতে নিতে পারেন। এ লক্ষ্যে নেতাদের উৎসাহ দিতে পারি আমরা। আমরা ব্যবসায়ীরাও মনে করি, ২০৫০ সালের মধ্যে কার্বন নিঃসরণের মাত্রা শূন্য শতাংশে নামিয়ে আনা সম্ভব। এ লক্ষ্য থেকে সরে যাওয়া আমাদের উচিত হবে না। সত্যি কথা বলতে কি, জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় এবারের জাতিসংঘ জলবায়ু সম্মেলনটির চেয়ে বড় কোনো সুযোগ আর হতে পারে না। আমাদের নেতারা যদি জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় শক্ত পদক্ষেপ নিতে পারেন, তাহলে তা বেসকারি ও ব্যক্তিমালিকানাধীন কোম্পানিগুলোকে কম কার্বন নিঃসরণকারী জৈবপ্রযুক্তি উদ্ভাবন, পরিবেশের স্বার্থে নতুন নতুন উদ্ভাবন, পরিবেশ সহায়ক বিদ্যুৎ উৎপাদনে অধিক বিনিয়োগ ও এককথায় সবুজ পৃথিবী বাস্তবায়নে একটি পরিস্কার বার্তা দিতে পারবে। ইতিমধ্যে আমাদের ভার্জিন গ্রুপ অব কোম্পানিজের পক্ষ থেকে ২০৫০ সালের মধ্যে নিঃসরণ শূন্যে নামিয়ে আনতে বেশ কিছু পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।
উদাহরণস্বরুপ, এভিয়েশন শিল্প কার্বণ নিঃসরণ শূন্যে নামিয়ে আনতে একটি উচ্চাভিলাষী লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে। এ লক্ষ্যে অটুট থাকলে এভিয়েশন শিল্প আর কোনো নিঃসরণ করবে না।
রিচার্ড লিখেছেন, ২০০৭ সাল থেকে ২০১৪ সালের মধ্যে ভার্জিন এয়ারলাইনস কার্বন ডাই অক্সাইড নিঃসরণের পরিমাণ ১২ শতাংশ কমিয়েছে। ২০১১ সালে তার আগের বছরের তুলনায় ভার্জিন গ্রুপ ২৫ শতাংশ নিঃসরণ কমাতে সক্ষম হয়েছে। ২০১৫ সালের মধ্যে এ নিঃসরণের পরিমাণ ৩০ শতাংশ পর্যন্ত কমানোর লক্ষ্যমাত্রা আছে আমাদের। ১৯৮৭ সালে গ্রো ব্রানড্টল্যান্ড যখন একটি টেকসই উন্নয়ন লক্ষমাত্রার কথা বলেছিলেন, তখন অধিকাংশ সিইও’ই তার কথার মর্মার্থ বুঝতে পারেননি। বহু বছর পর এখন এসে বহু ব্যবসায়ী ও বিজ্ঞানী তার কথার সাথে একমত পোষণ করছেন

Share

Author: 24bdnews

4787 stories / Browse all stories

Related Stories »

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ফেসবুকে আমরা »

ছবি সংবাদ »

নিউজ আর্কাইভ »

MonTueWedThuFriSatSun
  12345
27282930   
       
      1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031     
    123
11121314151617
252627282930 
       
 123456
28293031   
       
     12
3456789
10111213141516
24252627282930
31      
   1234
567891011
12131415161718
19202122232425
2627282930  
       
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031    
       
     12
17181920212223
24252627282930
       
  12345
2728     
       
      1
23242526272829
3031     
   1234
262728293031 
       
   1234
12131415161718
       
      1
3031     
29      
       
      1
16171819202122
30      
   1234
12131415161718
19202122232425
262728293031 
       
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
282930    
       
     12
17181920212223
24252627282930
31      
  12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
       

সবশেষ সংবাদ »

সারাদেশ »