‘আসুন দেশকে শান্তিপূর্ণভাবে এগিয়ে নিয়ে যাই’

0
14

ঢাকা (বাংলা ২৪ বিডি নিউজ): বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার উদ্দেশে শান্তিপূর্ণভাবে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম।
রাজধানীর বায়তুল মোকাররম মসজিদের দক্ষিণ গেটে মঙ্গলবার বিকেলে আওয়ামী লীগের সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ আহ্বান জানান।
খালেদা জিয়ার উদ্দেশে সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেন, আসুন দেশকে আমরা শান্তিপূর্ণভাবে এগিয়ে নিয়ে যাই। নির্বাচন হবে, সুষ্ঠু নির্বাচন হবে। সে নির্বাচনে একটি প্রাণ হত্যা করার প্রয়োজন হবে না। জননেত্রী (শেখ হাসিনা) সেই গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে। আমরাও এটাই চাই। আমরা দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাব। আমরা দেশকে আরও শক্তিশালী করব।
কিসের জন্য খালেদা জিয়া আন্দোলন করেছিলেন? এমন প্রশ্নে করে তিনি বলেন, গত বছর জানুয়ারি থেকে এপ্রিল পর্যন্ত আপনি (খালেদা জিয়া) ৬৪ জন মানুষকে হত্যা করলেন। গাড়ি পোড়ালেন ৭০০ শ’, অর্থনৈতিক ক্ষতি হলো। এমনকি এসএসসি পরীক্ষা পর্যন্ত বন্ধ করলেন। কিসের জন্য, গণতন্ত্রের জন্য?
আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, গণতন্ত্রের জন্য মানুষ হত্যা করতে হয় না। আপনি বাংলাদেশকে অকার্যকর করতে চান, যাতে আমরা এ দেশকে এগিয়ে নিতে না পারি। এ জন্য আপনি রক্তের হোলি খেলা খেলেছিলেন। বাংলাদেশের মানুষ আপনার অপকর্ম কোনোদিন ভুলে যাবে না।
যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেন, আমাদের এই সমাবেশ সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে করার কথা ছিল। কিন্তু দুঃখের বিষয় এই সমাবেশ পণ্ড করতে বিএনপিও সেখানে সমাবেশ ডেকেছিল। সকল প্রস্তুতি থাকা সত্ত্বেও আমরা আমাদের সমাবেশ বন্ধ করেছি। আমাদের সমাবেশ করতে বাধা প্রদানের মাধ্যমে বিএনপি সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সভা-সমাবেশ করার নৈতিক অধিকার হারিয়েছে। এ দেশের জনগণ আপনাদের সেখানে কোনো সমাবেশ করতে দেবে না।
বিএনপি নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়া মনেপ্রাণে পাকিস্তানি। তাকে দিয়ে আপনাদের দল চলবে না। তাকে বাদ দিয়ে দলকে নতুনভাবে ঢেলে সাজান। তাহলে আপনাদের দলের জন্য মঙ্গল হবে। সত্যিকারের বিরোধী দল হিসেবে এ দেশের জনগণের সহায়তা পাবেন।
সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য ও শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও খাদ্যমন্ত্রী এ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাসিম, বিএম মোজাম্মেল হক, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ, কার্যনির্বাহী সদস্য এনামুল হক শামীম, সুজিত রায় নন্দী প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here