পোলিও নির্মূল, জাইকার সনদ পেল সরকার

0
7

ঢাকা (বাংলা ২৪ বিডি নিউজ): টিকাদান কর্মসূচি, পোলিও নির্মূল এবং ফাইলেরিয়া প্রতিরোধে সাফল্যের জন্য জাইকার (জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সি) প্রেসিডেন্ট সনদ পেল স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়।

সচিবালয়ে রবিবার এক অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমের হাতে সনদ তুলে দেন জাইকার বাংলাদেশ অফিসের প্রধান প্রতিনিধি মিকিও হাতাইদা।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে, স্বাস্থ্য সেবায় সাফল্য অর্জনকারী চার থেকে পাঁচটি দেশকে প্রতিবছর জাইকা প্রেসিডেন্ট সনদ দেওয়া হয়। গুটিকয়েক দেশের মধ্যে এ বছর বাংলাদেশকে নির্বাচন করা হয়।

অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘পোলিওমুক্ত বাংলাদেশের স্বীকৃতি হিসেবে জাইকা সনদটি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়কে দিয়েছে। এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ অর্জন। এ সনদ সারাদেশে টিকা প্রদানের সহায়তায় নিয়োজিত লাখ লাখ কর্মীদের পরিশ্রমলব্ধ সাফল্যের স্বীকৃতি।’

‘বাংলাদেশ থেকে যেভাবে পোলিও নির্মূল করা হয়েছে, অতীতে অনেক দূরারোগ্য ব্যাধি নির্মূলেও এদেশের জনগণ সেভাবেই সফল হয়েছে। ফাইলেরিয়া নির্মূলেও বাংলাদেশ অনেক এগিয়ে। শিগগিরই বাংলাদেশকে ফাইলেরিয়া মুক্ত ঘোষণা করার মতো পরিবেশ তৈরি হয়ে যাবে’ বলেন মোহাম্মদ নাসিম।

টিকাদান কর্মসূচিতে বছরে ব্যয় ৭৪৪ কোটি টাকা

বাংলাদেশে টিকাদান কর্মসূচি ও পোলিও টিকার ক্ষেত্রে কত ব্যয় হয় জানতে চাইলে সম্প্রসারিত টিকাদান কর্মসূচির প্রোগ্রাম ম্যানেজার তাজুল ইসলাম বারী বলেন, ‘প্রতি বছর আমাদের ভ্যাকসিন বাবদ ৭৪৪ কোটি টাকা ব্যয় হয়। পোলিও’র জন্য প্রতিবছর নিয়মিত টিকাদান কর্মসূচির জন্য ২০ কোটি টাকা লাগে।’

‘রোগী জিম্মি করে ধর্মঘটে যাওয়া উচিত নয়’

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়েরে এ্যানেসথেসিয়া বিভাগের চিকিৎসকরা ধর্মঘট করছেন। প্রায়ই রোগীদের জিম্মি করে চিকিৎসকদের আন্দোলন করতে দেখা যায়- এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘এ ব্যাপারে আমার অবস্থান পরিস্কার, আগেও বলেছি আমি। রোগীকে জিম্মি করে কোন পেশার মানুষকেই ধর্মঘটে যাওয়া উচিত নয়। ডাক্তারদের ক্ষেত্রে তো নয়ই। এ ব্যাপারে আমি বিএমএকে বলি, স্বাচিপকে বলি। কারো যদি কোন অভিযোগ থাকে মানববন্ধন করেন, অন্য কোন কর্মসূচি করেন। রোগীকে কেন জিম্মি করবেন।’

তিনি আরো বলেন, ‘চিকিৎসকরা একটি সংবেদনশীল জায়গায় অবস্থান করেন বলে আমি তাদের অনুরোধ করি এ ব্যাপারটি পরিহার করার জন্য।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here