আবারও ছোট পর্দায় পূর্ণিমা

0
6

(বাংলা ২৪ বিডি নিউজ): ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেত্রী তিনি। অভিনয় দক্ষতার কারণে দর্শক হৃদয়ে জায়গা করে নিয়েছেন অল্প সময়েই। সেই সাথে পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। তিনি জনপ্রিয় অভিনেত্রী পূর্ণিমা। তবে পারিবারিক মেলবন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার পর থেকে সেভাবে তাকে আর অভিনয়ে দেখা যায় নি।

তবে সে বিরতি ভেঙে ২০১৫ সালের ২৩ আগস্ট অভিনয়ে ফিরেছিলেন ‘আমার বেলা যে যায়’ টেলিছবির মাধ্যমে। আর পরিচালক ছিলেন আরিফ খান। তবে পূর্ণিমা যেমন ছিলেন, তেমনই আছেন। পাল্টান নি একটুও। রূপের সেই একই লাবণ্য। এদিকে গত ঈদে নাটকে অভিনয়ের ধারাবাহিকতায় আবারও নতুন একটি নাটকে অভিনয় করতে যাচ্ছেন। আর শুটিং শুরু ১৫ মার্চ থেকে। তবে পূর্ণিমা এ বিষয়ে বিস্তারিত আর কিছু বলতে চান নি।

অভিনয়ের বিষয়ে পূর্ণিমা বলেছেন, ‘আমি কিন্তু অনেক আগে থেকেই নাটক করছি। কিন্তু আমার চাওয়া-পাওয়ার ব্যাপারটিও মিলতে হবে। এখন কিন্তু আমি আগের মতো বিরতিহীনভাবে কাজ করতে পারব না। আমাকে সন্তান আর সংসার নিয়েও ব্যস্ত থাকতে হবে। তাই সবকিছু সামলে নিয়ে যার সঙ্গে কথাবার্তায় মিলবে, তার নাটকেই অভিনয় করব। আর ফাঁকে ফাঁকে বিশেষ দিবসের নাটকগুলোয় অভিনয় করেছি। তাছাড়া যখন চলচ্চিত্রে খুব ব্যস্ত ছিলাম, তখনো ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করে গেছি’।

ঢাকাই চলচ্চিত্রে পূর্ণিমার বয়স সতেরো পেরিয়েছে গত বছর। পূর্ণিমা তার ১৮ বছরের অভিনয় জীবনে শতাধিক দর্শকনন্দিত ছবি উপহার দিয়েছেন। আর এর স্বীকৃতস্বরূপ জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারও অর্জন করেছেন। জাকির হোসেন রাজুর ‘এ জীবন তোমার আমার’ ছবির মধ্য দিয়ে ১৯৯৮ সালে তিনি নায়িকা হিসেবে রুপালি পর্দায় যাত্রা শুরু করেন। তার মুক্তিপ্রাপ্ত সর্বশেষ ছবি সোহানুর রহমান সোহানের ‘লোভে পাপ পাপে মৃত্যু’।

পূর্ণিমা অভিনীত জনপ্রিয় ছবিগুলো হল- ‘মনের মাঝে তুমি’, ‘হৃদয়ের কথা’, ‘প্রেমের নাম বেদনা’, ‘ছোট্ট একটা ভালোবাসা’, ‘আকাশছোঁয়া ভালোবাসা’, ‘সুলতান’, ‘শাস্তি’, ‘শুভা’, ‘মেঘের পরে মেঘ’, ‘স্বামী-স্ত্রীর যুদ্ধ’, ‘পিতামাতার আমানত’, ‘মাটির ঠিকানা’, ‘সাথী তুমি কার’, ‘সবাই তো ভালোবাসা চায়’, ‘মায়ের জন্য পাগল’ প্রভৃতি।

কাজী হায়াৎ পরিচালিত ‘ওরা আমাকে ভালো হতে দিল না’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য ২০১০ সালের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার ঘরে তুলেছেন পূর্ণিমা। বছর কয়েক আগে ব্যবসায়ী ফাহাদ জামালের সঙ্গে বিয়েবন্ধনে আবদ্ধ হন তিনি। তাদের ঘর আলোকিত করে ২০১৪ সালে কন্যা সন্তান আরশিয়ার জন্ম হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here