”আমাদের প্রধান সমস্যা হচ্ছে পলিটিক্যাল উইং”

0
7

 নারায়ণগঞ্জ (বাংলা ২৪ বিডি নিউজ): দুদকের মহাপরিচালক মোঃ সহিদুজ্জামান বলেছেন, আমাদের দেশে প্রধান সমস্যা হচ্ছে পলিটিক্যাল উইং। দুর্নীতি থামাতে হলে আমাদের ব্রেনটা ওয়াশ করে নিজের মাইন্ড সেটআপ করতে হবে। আমরা চাচ্ছি অতীতে কি হয়েছে সেটা বাদ। বর্তমানে আমরা দুর্নীতিকে প্রতিরোধ করতে চাচ্ছি। আমরা মামলাতে যাবনা। দুদকের বর্তমান থিওরি হচ্ছে অপরাধ ঘটার আগেই সেটা প্রতিরোধ করতে হবে। দুদকের নতুন গঠনতন্ত্রও অনুমোদন হয়েছে। নীতি বর্হিভূত সব ধরনের কাজই দুর্নীতি। সেটা রিকশাওয়ালার ক্ষেত্রে হোক আর সরকারী বড় কর্মকর্তাই হোক। অনেক সরকারী কর্মকর্তা সমস্যার কথা বললেও পলিটিক্যাল সমস্যার কথা এড়িয়ে যান। সরকারের যে ভিশন সেটা বাস্তবায়ন করতে হলে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে দুর্নীতিকে থামাতে হবে। আমাদের বর্তমান কমিশন অত্যন্ত কঠোর। কোন সমস্যা হলে আমাদের কাছে চিঠি পাঠিয়ে দেন। দুর্নীতিকে থামাতে হলে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। জিরো থেকে শুরু করতে হবে। ৬৪ জন জেলা প্রশাসক আমাদেরকে সহযোগিতা করছেন। আমাদের যৌথভাবে কাজ করতে হবে।
‘দেশপ্রেমের শপথ নিন দুর্নীতিকে বিদায় দিন’ এই স্লোগানে দুর্নীতি প্রতিরোধ সপ্তাহ উপলক্ষ্যে বুধবার নারায়ণগঞ্জ জেলার বিভিন্ন দফতরের কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) এর মহাপরিচালক মোঃ সহিদুজ্জামান।
মতবিনিময় সভার আয়োজন করেন নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসন ও জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটি। নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক আনিছুর রহমান মিঞার সভাপতিত্বে মতবিনিময়ে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি ডা. শাহনেওয়াজ চৌধুরী। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা সিভিল সার্জন ডা. আশুতোষ দাস, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) গাউছুল আজম প্রমুখ।
ব্যাংকিং সেক্টর সম্পর্কে তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জে সোনালী ব্যাংক মহিলা শাখায় (বর্তমানে ফরেন এক্সচেঞ্জ) প্রায় ৭০০ কোটি টাকা লোপাট হয়েছে। ২৩টি মামলার চার্জশীটও দিয়েছি। যদি আগেই প্রতিরোধ হতো তাহলে এটা ঘটতো না। নারায়ণগঞ্জের কিছু সুতা ব্যবসায়ী ও রূপসীর কিছু ব্যবসায়ী এই টাকাগুলো নিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here