সিদ্ধিরগঞ্জে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগে স্বামী আটক

0
5

 নারায়ণগঞ্জ (বাংলা ২৪ বিডি নিউজ): সিদ্ধিরগঞ্জে কামরুন্নাহার রানী (৩৫) নামের এক গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় পুলিশ নিহতের স্বামী জামান হোসেন উজ্জলকে আটক করেছে। নিহতের পরিবারের দাবি রানীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর আত্মহত্যা বলে চালানোর জন্য মরদেহ ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। রোববার দুপুরে মরদেহ উদ্ধারের পর ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে থানার এসিআই পানির কল এলাকায়।
শরীয়তপুরের ডামুইড্যা এলাকার জামাল হোসেন উজ্জ্বলের সঙ্গে ফেনীর সোনাগাজী চরখোয়াজ এলাকার কামরুন্নাহার রানীর ৫ বছর আগে বিয়ে হয়। এটা উভয়ের দ্বিতীয় বিয়ে। তাদের সংসারে ইসরাত জাহান নওরীন নামের ৪ বছরের একটি মেয়ে রয়েছে। সিদ্ধিরগঞ্জের আইলপাড়া এলাকায় উজ্জলের একটি হোসিয়ারি কারখানা রয়েছে। তাদের মধ্যে পারিবারিক কলল চলে আসছিল অনেকদিন থকে। এক পর্যায়ে কামরুন্নাহার স্বামী উজ্জলের বিরুদ্ধে নারায়ণগঞ্জ আদালতে মামলা করে। ওই মামলায় উজ্জল জেলও খাটে। পরে পরিবারের মধ্যস্থতায় তাদের মধ্যে আপোষ-মিমাংশা হয়। কিন্তু শনিবার রাতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ফের ঝগড়া হয়। ঝগড়ার সুত্র ধরে উজ্জল স্ত্রীকে মারধর করে বলে অভিযোগ উঠেছে। স্থানীয়রা জানান, রোববার বেলা ১১টার দিকে রানীর ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেওয়া হয়। পরে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে। এদিকে খবর পেয়ে কর্মস্থল থেকে বাসায় আসলে পুলিশ উজ্জলকে আটক করে।
এদিকে নিহতের ছোট ভাই সাইফুল ইসলাম সুমন জানান, বিয়ের পর থেকে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া-বিবাদ লেগে ছিলো। রানীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দেওয়ার জন্য বৈদ্যুতিক পাখার সঙ্গে লাশ ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে বলে তার দাবি।
সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপ পরিদর্শক (এস আই) জসিম জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে রানী আত্মহত্যা করেছে। তবে মৃতের পরিবারের দাবির ভিত্তিতে আমরা স্বামী উজ্জ্বলকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছি। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে। এ ঘটনায় নিহতের ছোট ভাই সাইফুল ইসলাম বাদী হয়ে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here