নেইমারের ৫৫ লাখ ইউরো জরিমানা

0
2

ক্রীড়া ডেস্ক (বাংলা ২৪ বিডি নিউজ): নেইমারের দলবদল নিয়ে বার্সেলোনায় গত দুই বছর ধরেই ঝামেলা চলে আসছিল। অভিযোগ করা হচ্ছিল নেইমারের ট্রান্সফারটি স্বচ্ছভাবে করেনি কাতালান ক্লাব বার্সেলোনা। তবে স্পেনের ক্লাবটি বরাবরই বলে আসছিল এখানে কোনো অস্বচ্ছতা নেই। কিন্তু শেষ অবধি তারা নিজেদের সেই দাবি থেকে সরে এসে ৫৫ লাখ ইউরো জরিমানা দিতে রাজি হয়েছে।

প্রথমে কাতালান ক্লাবটি বলেছিল, নেইমারকে পেতে তারা খরচ করেছে ৫৭ মিলিয়ন ইউরো। কিন্তু পরে তদন্তে উঠে আসে ভিন্ন তথ্য। নেইমারের জন্য বার্সার আসল খরচ হচ্ছে ৮৭ মিলিয়ন ইউরো। যার মধ্যে ৪০ মিলিয়ন ইউরো জমা পড়েছিল নেইমারের বাবার ব্যক্তিগত প্রতিষ্ঠানের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে।

যার ফলে নেইমারের বাবার বিরুদ্ধে প্রতারণার মামলা ঠুকে দেয় ব্রাজিলের বিনিয়োগ প্রতিষ্ঠান ডিআইএস। পরে ওই মামলার তদন্তেই বের হয়ে আসে নেইমারের দলবদলে বেশ কিছু বিষয় নিয়ে রয়েছে অস্বচ্ছতা। এমনকি বার্সা একটি বেশ বড় অংকের কর ফাঁকি দিয়েছে বলেও অভিযোগ ওঠে।

তবে এ সব অভিযোগ প্রথম থেকেই অস্বীকার করে আসছিল বার্সা। কিন্তু এখন জরিমানা দেওয়ার পর তারা কী বলবে? সে ক্ষেত্রেও বার্সার সভাপতি জোসেপ বার্তেমেউ দাবি করেছেন, শুধু ঝামেলা থেকে রেহাই পেতেই নাকি জরিমানা দিয়েছেন তিনি।

বার্তেমেউ বলেন, ‘নেইমারকে সঠিক প্রক্রিয়াতেই বার্সাতে আনা হয়েছে। দ্বিতীয়বার ওকে চুক্তিবদ্ধ করলে ঠিক একই রকমভাবে করতাম। ঝামেলা চুকিয়ে ফেলতে এবং ক্লাবের ভালোর জন্য জরিমানা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এটা মোটেও সহজ ছিল না। জরিমানা না দিলে বার্সার ওই কর ফাঁকির মামলা চালিয়েই যেতে হতো। বার্সার ভালোর জন্য এটাই সবচেয়ে উপযুক্ত বিকল্প ছিল।’

কর ফাঁকির ঝামেলা থেকে মুক্তি পেলেও প্রতারণার মামলা থেকে কিন্তু এখনও রেহাই পায়নি বার্সা। তবে এটাও সমঝোতার মাধ্যমে মিটমাট করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে তারা।

আর স্পেনের এমন কর সংক্রান্ত নীতির কারণে নাকি অনেকটাই বিরক্ত ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার। এ কারণে তিনি নাকি স্পেন ছাড়তে চাচ্ছেন। তবে তাকে আবারও চুক্তিবদ্ধ করার ব্যাপারে আশাবাদী বার্তেমেউ।

তিনি জানান, খুব শিগগিরই নতুন চুক্তি করবেন নেইমারের সঙ্গে। আর এ বিষয়ে নেইমারের বাবার সঙ্গে ইতোমধ্যে আলাপও করে ফেলেছে ক্লাবটি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here