দেশ বিক্রি করছে সরকার : রিজভী

0
5

দেশের বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ এবং সুন্দরবনের ক্ষতির বিষয়টি আমলে না নিয়ে সরকার অন্য একটি দেশের স্বার্থে রামপালে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ করছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।
এর অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণের প্রতিবাদে আয়োজিত জনসমাগমে পুলিশ দিয়ে হামলা চালানো হয়েছে। এ সরকার দেশের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে। তারা দেশ বিক্রি করে দিচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপরসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে শুক্রবার (২৯ জুলাই) দুপুরে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেন রিজভী।
তিনি বলেন, ‘অন্য একটি দেশের স্বার্থে মাস্টারপ্লান বাস্তবায়নে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় বসানো হয়েছে। দলটি এখন তাদের স্বার্থ বাস্তবায়ন করছে। রামপালে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণের প্রতিবাদে বিক্ষোভকারী জনগণের ওপর হামলা সেটিই প্রমাণ করে।’
রামপালে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ করা হলে সুন্দরবন ধ্বংস হবে উল্লেখ করে রিজভী বলেন, ‘এর ফলে প্রাকৃতিক ভারসাম্য হারিয়ে মরুভূমি হবে দেশ। দেশের প্রাকৃতিক বৈচিত্র ধ্বংস করতে সরকার তোড়জোর শুরু করেছে।’
বিএনপির এ নেতা বলেন, ‘রামপালে বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণের প্রতিবাদে যারা রাজপথে নেমে সরকারি হামলায় নির্যাতিত হয়েছে, তারাই প্রকৃত দেশপ্রেমিক। এ সরকার দেশের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে। তারা দেশ বিক্রি করছে।’
দেশবিরোধী যে কোনো কাজে বিএনপি অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে ভবিষ্যতেও করবে বলে জানান তিনি।
রিজভী বলেন, ‘আগে শোনা যেত, জঙ্গিবাদের সঙ্গে মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা জড়িত। এখন দেখছি ধনি পরিবারের সন্তানরাও এসব কর্মকাণ্ডে যুক্ত হচ্ছে। সেকুলার সরকারের সময় কেন এসব হচ্ছে?’
জঙ্গিবাদের সঙ্গে জড়িতদের কেন জীবিত আটক করা হচ্ছে না-এ প্রশ্ন রেখে বিএনপির এ নেতা বলেন, ‘জীবিত থাকা অবস্থায় আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে প্রকৃত তথ্য বেরিয়ে আসতো আরও কারা এসব ঘটনার জড়িত। গুলশানের হলি আর্টিজানের ঘটনা নিয়ে প্রশ্ন ওঠেনি, কিন্তু কল্যাণপুরের ঘটনা নিয়ে সংশয় কেন?’
সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন—বিএনপি নেতা অ্যাডভোকেট মাসুদ আহমেদ তালুকদার, অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া, বেলাল আহমেদ, চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইংয়ের সদস্য শামসুদ্দিন দিদার প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here