আজ: বৃহস্পতিবার, ১৮ই অক্টোবর, ২০১৮ ইং, ৩রা কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, হেমন্তকাল, ৯ই সফর, ১৪৪০ হিজরী, রাত ১:১২

একক নির্বাচন প্রস্তুতি জাতীয় পার্টিতে

ঢাকা (বাংলা ২৪ বিডি নিউজ): জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে নিজেদের শক্তি বাড়াতেই বেশ তোড়জোড় শুরু করেছেন জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। শুরু করেছেন সারাদেশে সাংগঠনিক সফর। দলীয় নেতাকর্মীদের নির্দেশ দিয়েছেন আগামী ১ জানুয়ারির মধ্যে তৃণমূল পর্যন্ত কমিটি গঠনের।

লক্ষ্য আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এককভাবে অংশ নেওয়া। সে লক্ষ্য সামনে রেখে বিভিন্ন আসনে প্রার্থী তালিকা করার কাজ শুরু করেছে দলটি। ইতোমধ্যে আগাম প্রচারে নেমে পড়েছেন দলের চেয়ারম্যান এরশাদ। তিনি বলছেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন করবেন এককভাবে। তবে এককভাবে করতে না পারলেও তখনকার সময়ে কোন দলের সঙ্গে থেকে ক্ষমতার স্বাদ ভোগ করা যাবে, তার হিসাব-নিকাশ এখনই কষতে শুরু করেছে জাতীয় পার্টি বলে সূত্রে জানা গেছে।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আরও প্রায় আড়াই বছর বাকি। কিন্তু এখনই আগাম নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণায় নেমে পড়েছে জাতীয় পার্টি। কারণ আগামী নির্বাচন পর্যন্ত সাংগঠনিক সকল দুর্বলতা কাটিয়ে জাতীয় পার্টি ক্ষমতায় যেতে চায়। সে লক্ষ্যে গত ১ অক্টোবর হযরত শাহজালাল (রহ.) মাজার জিয়ারতের মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিক প্রচার-প্রচারণা কার্যক্রম শুরু করেছেন দলের চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। তিনি আরেকবার ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য জনগণের ভোট, দোয়া ও সহযোগিতা চেয়ে বেড়াচ্ছেন।

এছাড়া আগামী এক জানুয়ারি জাতীয় পার্টির ৩২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে রাজধানীতে মহাসমাবেশ করার পরিকল্পনা নিয়েছে দলটি। তাই নির্বাচনী প্রচারণার পাশাপাশি মহাসমাবেশের প্রস্তুতিও থাকবে নেতাদের। এভাবেই জেলা ও উপজেলা কমিটিগুলোতে মহাসমাবেশ সফল করার বার্তাও দেওয়া হবে সাংগঠনিক সফরে। পর্যায়ক্রমে সকল বিভাগীয় শহরে মহাসমাবেশ করবেন চেয়ারম্যান এরশাদ। মূলত দলের সাংগঠনিক দূরবস্থা কাটিয়ে উঠতে আগামী নির্বাচনকে কৌশল হিসেবে নিয়েছেন তিনি।

এই সুযোগে যোগ্য প্রার্থীর খোঁজ করার পাশাপাশি বিভিন্ন জেলা-উপজেলা থেকে শুরু করে ইউনিয়ন পর্যন্ত রাজনৈতিক নানা কর্মসূচি ঠিক করা হয়েছে। ইতোমধ্যে কেন্দ্রীয় ও জেলা পর্যায়ের নেতৃবৃন্দের সমন্বয়ে ৫২টি সাংগঠনিক টিম গঠন করা হয়েছে। এই টিমগুলো আগামী ১৫ দিনের মধ্যে (সফরসূচি অনুযায়ী) জেলা কমিটির সাথে সভা করে উপজেলা ও ইউনিয়ন কমিটি গঠন করবে। উপজেলা কমিটিকে পরবর্তী এক মাসের সময়ের মধ্যে ইউনিয়ন কমিটিসমূহ গঠন করার নির্দেশ দেবে। পরের এক মাসের মধ্যে ইউনিয়ন কমিটি গঠন করে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে পাঠাতে হবে।

জাতীয় পার্টির নেতারা মনে করছেন, দলের সাংগঠনিক কর্মসূচি বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে জাপায় জাগরণ আসবে, যা আগামী নির্বাচনের ক্ষেত্রে ভোটের বাক্স ভারী করতে পারে। সেই সঙ্গে দেশব্যাপী কর্মসূচির মধ্য দিয়ে নিরুত্তাপ বিরোধী দলের কলঙ্কও কিছুটা ঘোচাতে চায় দলটি। তাই নির্বাচনের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। লক্ষ্য, একক নির্বাচনের মধ্য দিয়ে ক্ষমতায় যাওয়া। এজন্য তিনি (এরশাদ) বেশ কাজ করছেন।

তবে একসময় তৃণমূলে জাপার ভালো অবস্থান থাকলেও এখন আর তা নেই। তাই এককভাবে নির্বাচন নিজেদের জন্য কতটা লাভবান হবে তা নিয়ে এখনও অনেক চিন্তার বাকি রয়েছে। এছাড়া সম্প্রতি আগামী নির্বাচন একক না জোটগত করা হবে এ সম্পর্কে প্রেসিডিয়াম সদস্যদের মতামত জানতে চেয়ে চিঠি দিয়েছিলেন এরশাদ। অনেকেই এককভাবে, কেউ কেউ বর্তমান সরকারের সঙ্গে জোটগত নির্বাচনের কথা বলেছেন।

কয়েকজন বলেছেন, আগামী নির্বাচন নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময় এখনও আসেনি, উদ্ভূত পরিস্থিতির আলোকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। আবার অনেকেই উত্তর দেননি। তবে যারা দিয়েছেন তারা সবাই চেয়ারম্যানের ওপরই চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের দায়িত্ব দিয়েছেন। ফলে আগামীতে জাপার এককভাবে নির্বাচন করার সিদ্ধান্তটি যে চূড়ান্ত তা এখনই বলা যাচ্ছে না। তবে সব হিসাব-নিকাশ চূড়ান্ত করে আগামী সংসদ নির্বাচনের মাধ্যমে গঠিত সরকারের সঙ্গে যেন ভালো সম্পর্ক থাকে কিংবা জোট করলে যেন তাদের সঙ্গেই করা হয় সে দিকটায় চেয়ারম্যান এরশাদ বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন বলে জানা গেছে।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে যারা সংসদ সদস্য আছেন কিংবা যারা আগামীতে নির্বাচন করতে চান, এমন নেতাদের একটি খসড়া তালিকা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট এলাকায় নিজেদের অবস্থান সম্পর্কেও চেয়ারম্যানকে অবহিত করেছেন তারা। চেয়ারম্যান এখন নিজে মাঠে থেকে নেতাদের অবস্থান পর্যবেক্ষণ করবেন। বিভাগীয় সম্মেলনগুলোতে এরশাদ নিজে উপস্থিত থাকবেন। করবেন মহাসমাবেশ। জেলা ও উপজেলায় যাবেন কেন্দ্রীয় নেতারা। এরপর তিনি সিদ্ধান্ত নেবেন কার হাতে লাঙল দেবেন। সে লক্ষ্য নিয়েই পরিকল্পনা করা হয়েছে।

দল গোছানো এবং নির্বাচনী প্রচারণার অংশ হিসেবে জাপা চেয়ারম্যান এরশাদ গত ১ অক্টোবর হযরত শাহজালাল (রহ.) মাজার জিয়ারতের মধ্য দিয়ে সিলেট থেকে আনুষ্ঠানিকতা শুরু করেছেন। কারণ ১৯৯০ সালে ক্ষমতা ছাড়ার পরও সিলেট ছিল জাতীয় পার্টির ঘাঁটি। যে কারণে ১৯৯১ সালের নির্বাচনে সিলেট বিভাগের ১৯টি আসনের মধ্যে ৮টি আসনে বিজয়ী হয় জাতীয় পার্টি। সারা দেশের মধ্যে রংপুরের পর সিলেটের এ ফল ছিল দ্বিতীয়। বর্তমানেও সিলেট বিভাগের ৪টি আসন রয়েছে জাপার দখলে।

আগামীতেও সিলেটে ভালো ফল করতে চান জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এরশাদ। তাই সিলেটের মাঠে জাতীয় পার্টি আয়োজিত বিশাল জনসভায় এককভাবে নির্বাচনে যাওয়ার ইঙ্গিত করে এরশাদ বলেন, দেশে এখন সবচেয়ে বড় অভাব নিরাপত্তার। কে কখন গুম হবে, কাকে কখন তুলে নিয়ে যাওয়া হবে কেউ জানে না। জানতে চাইলে একজন আরেকজনের ওপর দোষ চাপাচ্ছে। এ অবস্থার অবসান চাইলে, উন্নয়ন ও সমৃদ্ধি চাইলে আবার জাতীয় পার্টিকে ক্ষমতায় আনতে হবে। তাই দেশ পরিচালনায় আমাকে আরেকবার সুযোগ দিন। আমি আপনাদের আশা-আকাক্সক্ষার বাস্তবায়ন করব।

তিনি বলেন, আজ সিলেটে জানতে এসেছি, আগামীতে আবার ভোট দিয়ে ক্ষমতায় যাওয়ার সুযোগ করে দেবেন কিনা। তবে জনসভায় কাউকে প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা দেননি জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান। এর কারণ ব্যাখ্যা করতে গিয়ে তিনি বলেন, আমি চাইলে আজই প্রার্থী ঘোষণা করতে পারতাম। কিন্তু না, আমাদের হাতে আরও সময় আছে। তাই আমরা সময় নিচ্ছি। নেতাকর্মীদের বলব, দল গোছাও, দলকে সংগঠিত কর। আমি যোগ্যদের মূল্যায়ন করব, যোগ্যদের পুরস্কৃত করব।

এ বিষয়ে জাতীয় পার্টির মহাসচিব এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদার বলেন, জাতীয় নির্বাচনের প্রস্তুতির জন্য আড়াই বছর খুব বেশি সময় নয়। আমরা এককভাবে নির্বাচন করব। তাই সাংগঠনিক দুর্বলতা কাটিয়ে প্রার্থী ঠিক করা অনেক সময়ের ব্যাপার। সবকিছু বিবেচনায় একটু আগেভাগেই মাঠে নামা হয়েছে। তিনি বলেন, যোগ্যতার ভিত্তিতে ও এলাকায় জনসমর্থন বিবেচনায় এবার প্রার্থী ঠিক করতে চাই। যাকেই দেওয়া হবে তিনি যেন পাস করতে পারেন। চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত করার কথা জানিয়ে তিনি বলেন, ১ অক্টোবর প্রচার শুরুর দিন সিলেট এলাকায় আগাম প্রার্থী তালিকা

এখনও চূড়ান্ত হয়নি। আমাদের লক্ষ্য একটি সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচনে অংশ নিয়ে ক্ষমতায় আসা। সে লক্ষ্যেই নেতাকর্মীরা কাজ শুরু করেছেন বলে জানান তিনি। এ ব্যাপারে জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ফখরুল ইমাম এমপি বলেন, জাতীয় পার্টিকে আগামীতে ক্ষমতায় যেতে হলে দলকে শক্তিশালী করতে হবে। পার্টির চেয়ারম্যান এরশাদ সিলেট থেকে সেই কাজ আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু করেছেন। দল সংগঠিত হলে জাতীয় পার্টি আগামীতে ক্ষমতায় যাবে। তিনি নেতাকর্মীদের গ্রামেগঞ্জে জাতীয় পার্টিকে শক্তিশালী করার আহ্বান জানান।

Share

Author: 24bdnews

5145 stories / Browse all stories

Related Stories »

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ফেসবুকে আমরা »

ছবি সংবাদ »

সংগঠন সংবাদ »

প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে নারায়ণগঞ্জে অধিকারের আলোচনা সভা

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি (বাংলা ২৪ বিডি নিউজ): মানবাধিকার সংগঠন অধিকার এর ২৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে নারায়ণগঞ্জে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার (১০ অক্টোবর) বেলা ১১টায় শহরের কলেজ রোড এলাকায় অধিকার নারায়ণগঞ্জ ইউনিটির সমন্বয়ক…

নিউজ আর্কাইভ »

MonTueWedThuFriSatSun
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031    
       
     12
10111213141516
17181920212223
24252627282930
       
  12345
13141516171819
20212223242526
2728293031  
       
      1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031     
    123
45678910
11121314151617
18192021222324
252627282930 
       
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031   
       
      1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
30      
   1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728293031 
       
   1234
12131415161718
262728    
       
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031    
       
    123
45678910
18192021222324
25262728293031
       
  12345
27282930   
       
      1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031     
    123
11121314151617
252627282930 
       
 123456
28293031   
       
     12
3456789
10111213141516
24252627282930
31      
   1234
567891011
12131415161718
19202122232425
2627282930  
       
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031    
       
     12
17181920212223
24252627282930
       
  12345
2728     
       
      1
23242526272829
3031     
   1234
262728293031 
       
   1234
12131415161718
       
      1
3031     
29      
       
      1
16171819202122
30      
   1234
12131415161718
19202122232425
262728293031 
       
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
282930    
       
     12
17181920212223
24252627282930
31      
  12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
       
     12
3456789
10111213141516
17181920212223
2425262728  
       
  12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  
       

সবশেষ সংবাদ »

সারাদেশ »