না’গঞ্জে আ’লীগের বর্ধিত সভায় আইভীকে বাদ দিয়ে ৩জনের নাম চড়ান্ত

0
5

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি (বাংলা ২৪ বিডি নিউজ): নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) নির্বাচনে মেয়র পদে ৩জনের নাম উঠে এসেছে মহানগর আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায়। ওই তিনজনের নামই চূড়ান্ত করে দলের হাই কমান্ডের কাছে পাঠানো হবে। মঙ্গলবার (১৫ নভেম্বর) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসনের সার্কিট হাউজ মিলনায়তনে মহানগর আওয়ামী লীগের বিশেষ বর্ধিত সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়।
সভা শেষে মহানগর আওয়ামী লীগের সেক্রেটারী অ্যাডভোকেট খোকন সাহা জানান, মঙ্গলবারের সভায় আনোয়ার হোসেন সভাপতিত্ব করলেও এখন তিনি নির্বাচনী কাজে থাকায় সহ সভাপতি চন্দন শীলকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি করা হয়েছে।

আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি চন্দন শীল জানান, সভায় সবার সম্মতিক্রমে একজনের নাম উঠে আসে। তিনি হলেন মহানগরের সভাপতি আনোয়ার হোসেন। যেহেতু কেন্দ্র থেকে ৩ জনের নাম চাওয়া হয়েছে সেহেতু আনোয়ার হোসেনের পাশাপামি সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবর রহমান ও বন্দর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি এম এ রশিদের নামও প্রস্তাব করা হয়েছে।

চন্দন শীল আরো জানান, মহানগরের ২৭টি ওয়ার্ডের সভাপতি ও সেক্রেটারী ছাড়াও মহানগর আওয়ামী লীগের কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। তাছাড়া নারায়ণগঞ্জ সদর, বন্দর ও সিদ্ধিরগঞ্জ থানার নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আইভীর নাম না থাকা প্রসঙ্গে চন্দন শীল বলেন, সভায় উপস্থিত কোন একজন নেতাও আইভীর নাম প্রস্তাব না করায় তার নাম দেওয়ার সুযোগ নাই।
এর আগে বিকেল ৩টা হতে সার্কিট হাউজের মিলনায়তনে রুদ্ধদ্বার বৈঠকে এমপি শামীম ওসমান যিনি মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য তিনি সহ শীর্ষ নেতারা উপস্থিত ছিলেন। পরে বিকেল ৫টায় ব্রিফিং করেন আওয়ামী লীগ নেতারা।

এর আগে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের অন্তত ৩ সদস্যের প্যানেল তৈরি করে আগামী ২০ নভেম্বরের মধ্যে কেন্দ্রীয় মনোনয়ন বোর্ডের কাছে পাঠানোর নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে কেন্দ্র থেকে। ওই নির্দেশনায় বলা হয়, নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদককে যৌথ স্বাক্ষরে প্যানেলভুক্ত প্রার্থীদের যোগ্যতা, নেতৃত্বের গুণাবলি ও জনপ্রিয়তার বিষয় উল্লেখ করে কেন্দ্রীয় মনোনয়ন বোর্ডের কাছে পাঠাতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। প্যানেল হাতে পাওয়ার পর কেন্দ্রীয় মনোনয়ন বোর্ড বৈঠকে বসে একজনকে নারায়গঞ্জ সিটি করপোরেশনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগ মনোনয়ন দেবে।

আইভীর প্রতিক্রিয়া

এ ব্যাপারে সেলিনা হায়াত আইভীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি এখনই কোন কথা বলতে নারাজ। পরে এ ব্যাপারে কথা বলবেন জানিয়েছেন। তবে আইভীর ঘনিষ্ট একাধিক সূত্র জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে ফিরার পর আইভী কথা বলবেন।

এদিকে মেয়র পদে থেকে নির্বাচন প্রসঙ্গে আইভী বলেন, ‘এখনও নির্বাচনের বিষয়ে নির্বাচন কমিশন থেকে কোন চিঠি দেওয়া হয়নি। চিঠি পাওয়ার পরই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। ওই চিঠিতে যদি বলা হয় পদত্যাগ করে নির্বাচন করতে হবে তাহলে সেই অনুসারেই নির্বাচন হবে। আর দলীয় মনোনয়ন বিষয়ে এখন কিছু বলতে ইচ্ছুক না। দল যেহেতু আওয়ামীলীগ করি তাহলে দলের প্রতীকেই নির্বাচন করতে চাইবো।’

উল্লেখ্য, নির্বাচন কমিশন সোমবার নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছে। আগামী ২২ ডিসেম্বর ২০১৬ নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here