সাখাওয়াতের প্রচারণা রাজনৈতিক স্ট্যান্ডবাজি : আইভী

0
4

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি (বাংলা ২৪ বিডি নিউজ): আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেছেন, আমার বিরুদ্ধে বিএনপির প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী সাখাওয়াত হোসেন খানের অভিযোগ একটা রাজনৈতিক স্ট্যান্ডবাজি। মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে ওনি (সাখাওয়াত) পার পাবেন না। মূলত তিনি যা প্রচারণা করছেন সেটা রাজনৈতিক স্ট্যান্ডবাজি’।
শনিবার সকালে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের বন্দরের ২২ নং ওয়ার্ডে প্রচারণার সময় গণমাধ্যমকর্মীদের প্রশ্নের জবাতে তিনি এসব কথা বলেন।
বিএনিপর প্রার্থী সাখাওয়াত হোসেন অভিযোগ করেন তার নেতাকর্মীদের বাসায় গিয়ে আওয়ামীলীগের লোকজন হুমকি দামকি দিচ্ছেন। যাতে তারা সাখাওয়াত হোসেনের পক্ষে নির্বাচনে কাজ না করে। এ প্রসঙ্গে সেলিনা হায়াত আইভী বলেন,‘এটা সম্পূন্ন মিথ্যা কথা। এ মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে ওনি পার পাবে না। আমার মিথ্যার আশ্রয় নেওয়ার দরকার নাই। আমি কঠিন সত্যের মধ্যে দাড়িয়েও সত্য কথা বলি। কঠিন প্রতিকূলতার মধ্যে দাঁড়িয়েও আমি কখনো মিথ্যার আশ্রয় নেই নাই। আমার এমন কোন লোক নাই এমন কোন বাহিনী নাই যে কাউকে গিয়ে হুমকি দমকি দিবে। এ পর্যন্ত আমি সাখাওয়াত ভাইকে নিজে বলেছি যদি কোথাও কিছু হয় আমাকে বলবেন আমি নিজে ব্যবস্থা নিবো এবং সে যদি আমার ভাইও হয় তাহলে আমি তাকে আইনের হাতে তুলে দিবো। এর চেয়ে বেশি কোন একজন প্রার্থী বলতে পারে না। তারপরও তিনি যা প্রচারণা করছে সেটা রাজনৈতিক স্ট্যান্ডবাজী। মিথ্যা কথা বলে মানুষকে ভয় দেখাচ্ছে।’
আইভী আরো বলেন, ‘ওনাকে নির্দিষ্ট করে বলতে বলেন। আমার কোন বাহিনী নাই। আমি চলি একা, ঘুরি একা ও মানুষের সঙ্গে একা একা কথা বলেছি। বিগত পাঁচ বছর একাই কাজ করেছি পৌরসভার আমলেও আমি একা একা মানুষের সঙ্গে কথা বলেছি। আমি তো বলেই দিয়েছি ২২ তারিখে জনগণ যা সিদ্ধান্ত নিবে তাই হবে। ২৭টি ওয়ার্ডের এমন একটি ওয়ার্ডের কথাও বলতে পারবে না যেখানে ওনার প্রচার প্রচারণায় বাদা দিয়েছে। ওনিও সকল মানুষের কাছে যাচ্ছে আমিও যাচ্ছি।’
সেলিনা হায়াৎ আইভী আরো বলেন, ‘আমার কাছে ভোটার সকলই সমান। হিন্দু মুসলিম সকলই সমান এবং আওয়ামীলীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টি সকলই সমান। একজন সিটি করপোরেশনের মেয়র হিসাবে সিটি সকলের সমান। সুতরাং কাউকে আলাদা করে দেখার সুযোগ নাই। সিটি করপোরেশন জনগনের জন্য। এখানে সবাই সিটির নাগরিক। প্রধান রাস্তার কাজ হয়ে গেছে এখন শুধু অলি-গলির রাস্তাগুলো বাকী আছে। এখানে মানুষ অনেক বেশি, কাজও অনেক বেশি হয়েছে। এখন শুধু অলি-গলির রাস্তারগুলো করে দিতে হবে।
আপনি আচরনবিধি লংঘন করছেন সাখাওয়াতের এমন অভিযোগের ভিত্তিতে আইভী বলেন, আমি প্রতিদিনই ৩ থেকে ৪জন নিয়ে বের হই এখন যদি আমার পিছনে হাজার মানুষ আসে আমি কয়জনকে তাড়াবো। কাকে তাড়িয়ে দিবো। মাঝে মাঝে আমি নিজেও মানুষকে সরানোর চেষ্টা করছি। আমি নিয়ম কানুন মেনেই গণসংযোগ করছি। আমার গণসংযোগে কোন কোন মাইকও ব্যবহার করা হচ্ছে না। এমনকি আমার ২৭টি ওয়ার্ডে মাইক ব্যবহার করার অনুমতি থাকলেও আমি তা ব্যবহার করছি না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here