‘বিএনপিকে খাটো করে দেখার সুযোগ নেই’

0
3

রাজশাহী (বাংলা ২৪ বিডি নিউজ): দলের মধ্যে কোন নেতাকর্মী কোথায় কী করেন সবই জানি উল্লেখ করে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আপনাদের আচরণ নিয়ে সতর্ক থাকুন। সরকারের উন্নয়নে ঘাটতি নেই, ঘাটতি আছে নেতাকর্মীদের আচরণে। সবার আচরণটা শুদ্ধ করতে হবে।
তিনি বলেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপিই হবে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী। ভোটের রাজনীতিতে বিএনপিকে খাটো করে না দেখার সুযোগ নেই।
শনিবার রাজশাহীতে আওয়ামী লীগের বিভাগীয় কর্মী সমাবেশে এসব কথা বলেন সেতুমন্ত্রী। সকালে নগরীর ঐতিহাসিক মাদরাসা ময়দানে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

নেতাদের সমালোচনা করে সেতুমন্ত্রী বলেন, সরকারের উন্নয়নে ঘাটতি নেই, ঘাটতি আছে নেতাদের আচরণে। আচরণটা শুদ্ধ করতে হবে। নির্বাচনের দেরি নেই। মানুষের চোখের ভাষা, মনের ভাষা বোঝার চেষ্টা করেন। এখন ক্ষমতায় আছেন, কেউ কিছু বলছে না। আচরণ খারাপ হলে মানুষ ব্যালটে শাস্তি দেবে।

তিনি বলেন, দলে গণবিরোধী গডফাদার চাই না। জনপ্রিয় লিডার চাই। কর্মীবান্ধব নেতা হোন। কর্মীদের মূল্যায়ন করুন। অনুপ্রবেশকারী বসন্তের কোকিলদের দলে ঠাঁই দেবেন না। ত্যাগী কর্মীদের নিয়ে কমিটি করবেন। কর্মীদের ত্যাগই এই আওয়ামী লীগ। পরগাছাদের নিয়ে কেউ দল ভারি করার চেষ্টা করবেন না।
ওবায়দুল কাদের বলেন, মঞ্চের সামনে বসে থাকা সাধারণ কর্মীদের নিয়ে আওয়ামী লীগের কোনো সমস্যা নেই। সমস্যা মঞ্চে বসে থাকা নেতাদের নিয়ে। আমরা কর্মীদের ব্যবহার করি। নিজেদের স্বার্থরক্ষার পাহারাদার বানাই। কর্মীদের বলি, কারও স্বার্থরক্ষার পাহারাদার হবেন না। তাহলে ভালো নেতা পাবেন না। অপকর্ম করলেও দলে ভালো লোক আসবে না। খারাপ লোক আমাদের দরকার নেই।
সরকারের অন্যতম বিরোধীপক্ষ বিএনপি উল্লেখ করে সেতুমন্ত্রী বলেন, বিএনপি এখন নালিশবাদী দল। প্রত্যেক দিন শুধু নালিশ আর নালিশ। অর্জন নেই, ইতিহাস নেই, আন্দোলন নেই, কিচ্ছু নেই। বিএনপি এখন নিজেরাই নিজেদের শত্রু। তাদের নেতায় নেতায় মারামারি, হানাহানি, কোন্দল। তাই বিএনপিকে নিয়ে বিচলিত হওয়ার কিছু নেই। বিএনপির আন্দোলন করার মতো কোনো ক্ষমতাও নেই। তবে রাজনীতিতে ওদের খাটো করে দেখার সুযোগ নেই। এর আগে সকাল সাড়ে ১০টায় দলীয় পতাকা উত্তোলন ও পায়রা উড়িয়ে সমাবেশ উদ্বোধন করেন সেতুমন্ত্রী। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক।

দলের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরীর পরিচালনায় সমাবেশে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য ড. আবদুল খালেক, নূরুল ইসলাম ঠাণ্ডু, কেন্দ্রীয় সদস্য ও রাজশাহী নগর সভাপতি এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন, সাবেক স্বরাষ্ট্রপ্রতিমন্ত্রী শামসুল হক টুকু প্রমুখ।

অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য ওমর ফারুক চৌধুরী, আয়েন উদ্দিন, আবদুল ওয়াদুদ দারা, ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক, মীর ইকবাল, আতাউর রহমান, শহিদুজ্জামান শহিদ, আবদুল মান্নান, ইশরাফিল আলম, হাবিবুর রহমান, গোলাম মোস্তফা, গোলাম রাব্বানী, মকবুল হোসেন, আবদুল ওদুদ, গোলাম ফারুক খন্দকার প্রিন্স, আমজাদ হোসেন প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here