নারায়ণগঞ্জে সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশের মামলায় আসামী ৫০০

0
4

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি (বাংলা ২৪ বিডি নিউজ): নারায়ণগঞ্জ শহরের প্রধান সড়ক বঙ্গবন্ধু (বিবি রোড) সড়কের ফুটপাতে হকার বসানোকে কেন্দ্র করে নাসিক মেয়র ডা. সেলিনা হায়াত আইভী ও এমপি শামীম ওসমানের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় ৮দিন পর পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করেছে। বুধবার রাতে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি (অপারেশন) জায়নাল আবেদীন বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় আসামী করা হয়েছে অজ্ঞাত ৪০০ থেকে ৫০০ জনকে।
মামলায় অভিযোগ করা হয়, ১৬ জানুয়ারি বিকাল ৪টার দিকে সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী ও কাউন্সিলরসহ লোকজন নিয়ে নগর ভবন থেকে ফুটপাত দিয়ে পায়ে হেঁটে চাষাঢ়ার দিকে আসছিলেন। এসময় বিপরীত দিক থেকে নগরীর চাষাঢ়া প্রেস ক্লাবের দিকে আসা পদযাত্রাটির ওপর হকাররা আকস্মিকভাবে ইটপাটকেল নিক্ষেপ শুরু করে। এসময় এমপি শামীম ওসমানের অনুসারী যুবলীগ নেতা নিয়াজুল ইসলাম খান অস্ত্র উঁচিয়ে তাদের মুখোমুখি হলে আইভীর সমর্থকরা তাকে ধরে পিটুনী দেয়। তখন কে বা কারা তার হাত থেকে অস্ত্রটি নিয়ে যায়। দুই পক্ষের সংঘর্ষ ও ইটপাটকেল নিক্ষেপে মেয়র আইভী এবং সাংবাদিকসহ অনেক লোক আহত হন। এসময় দুই পক্ষের সংঘর্ষ চলাকালে দায়িত্ব পালনের সময় ইটপাটকেল নিক্ষেপে এএসআই (এবি) সুরুজ্জামান, এস আই সশস্ত্র আব্দুল হাই, কনস্টেবল স্বপন, কনস্টেবল রাসেল, কনস্টেবল বাকির, কনস্টেবল মনির ও কনস্টেবল সফিকুল আহত হন। এসময় পুলিশ ৯৯ রাউন্ড শটগানের গুলি, ২ রাউন্ড গ্যাস গান ও ২ রাউন্ড টিয়ারশেল ছুড়ে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।
নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসির দায়িত্বে থাকা আব্দুর রাজ্জাক বলেন, মামলা হয়েছে। এখন তদন্ত করে ঘটনার সঙ্গে কারা সম্পৃক্ত তাদের চিহিৃত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’
আইভীর মামলা নেয়নি পুলিশ
এদিকে নাসিক মেয়র ডা. সেলিনা হায়াত আইভীকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগটি মামলা হিসেবে রজু করেনি পুলিশ।
সোমবার রাতে সিটি করপোরেশনের আইন কর্মকর্তা জি এম এ সাত্তার বাদী হয়ে মেয়রকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ এনে সন্ত্রাসী নিয়াজুল ইসলামকে প্রধান করে ৯জনের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাত আরো ৯০০ থেকে ১০০০ জনকে আসামী করে একটি লিখিত অভিযোগ দেয় সদর মডেল থানায়।
জেলা পুলিশ সুপার মঈনুল হক সাংবাদিকদের জানান, সংঘর্ষের ঘটনায় আমরা দুটি অভিযোগ পেয়েছি। সেগুলো তদন্ত করে দেখছি।
উল্লেখ্য গত ১৬ জানুয়ারী নারায়ণগঞ্জ শহরের বঙ্গবন্ধু সড়কে হকার বসানোকে কেন্দ্র করে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াত আইভী ও এমপি শামীম ওসমানের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে মেয়র আইভী, সাংবাদিকসহ উভয় পক্ষের শতাধিক ব্যক্তি আহত হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here