জাতীয় দলের জালে আবাহনীর ৪ গোল

0
5

ক্রীড়া প্রতিবেদক (বাংলা ২৪ বিডি নিউজ): বিকেএসপিতে অনুশীলনে ব্যস্ত জাতীয় দলের ফুটবলাররা আবাহনীর সঙ্গে পেরে ওঠেননি। ছবি-বাফুফেগত ১৪ ফেব্রুয়ারি বিকেএসপিতে শুরু হয়েছে জাতীয় দলের আবাসিক ক্যাম্প। সোমবার প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছে লাল-সবুজের দল, আর প্রথম ম্যাচেই তারা বিধ্বস্ত। ঢাকা আবাহনীর কাছে ৪-০ গোলে হার মেনেছে বাংলাদেশ দল।

প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়নরা দুই অর্ধে দুটি করে গোল করেছে। নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড সানডে চিজোবা করেছেন দুই গোল, অন্য গোল দুটি আরেক নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড এমেকা ডার্লিংটন এবং নাবীব নেওয়াজ জীবনের।

জাতীয় দল দুটি পেনাল্টি পেয়েও গোল করতে পারেনি। সুযোগ দুটো নষ্ট করেছেন ফরোয়ার্ড তৌহিদুল আলম সবুজ ও ডিফেন্ডার তপু বর্মণ। ৯০ মিনিটের ম্যাচে জাতীয় দলের কোচ অ্যান্ড্রু ওর্ড ২২ জন খেলোয়াড়কে পরখ করার সুযোগ পেয়েছেন। প্রথমার্ধে এক দল খেলেছে, দ্বিতীয়ার্ধে অন্যরা, কিন্তু কোনও লাভ হয়নি।

বড় ব্যবধানে হেরে গেলেও জাতীয় দলের ম্যানেজার সত্যজিৎ দাশ রুপু হতাশ নন। বাংলা ট্রিবিউনকে তিনি বলেছেন, ‘জাতীয় দলের খেলোয়াড়রা এখন ফিটনেস নিয়ে কাজ করছে। এর মধ্যেই একটা ম্যাচ খেললো তারা। এই ম্যাচের ফল নিয়ে আশাহত হওয়ার কিছু নেই। আবাহনী দীর্ঘ দিন ধরে প্রস্তুতি নিয়ে এএফসি কাপে খেলার অপেক্ষায় আছে। তারা চারজন বিদেশি নিয়ে খেলেছে, তাই এই ফল অপ্রত্যাশিত নয়।’

হতাশ না হয়ে রুপু বরং দল নিয়ে আশাবাদী, ‘এই ম্যাচ দিয়ে জাতীয় দলের কোচ আবাহনীর খেলোয়াড়দের দেখার পাশাপাশি নিজের দলের খেলোয়াড়দের যাচাই করে নিতে পারলেন। কিছু দিন পর ফিটনেস পর্ব শেষ হলে জাতীয় দল একটা অবস্থানে পৌঁছাতে পারবে।’

আগামী ৭ মার্চ মালদ্বীপের নিউ রেডিয়েন্টের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে এএফসি কাপ শুরু করবে আবাহনী। লিগ চ্যাম্পিয়নদের কোচ সাইফুল বারী টিটু বললেন, ‘জাতীয় দলের হার বা আবাহনীর জয় বড় কথা নয়। তবে আমাদের জন্য ম্যাচটা খুব গুরুত্বপূর্ণ ছিল। কিছু দিন পর আমরা এএফসি কাপ খেলবো। বিদেশি খেলোয়াড়রা দলের সঙ্গে কতটা মানিয়ে নিতে পেরেছে, তা দেখা দরকার ছিল আমাদের জন্য। আজকের ম্যাচ দেখে বুঝলাম, আবাহনীকে বেশ কিছু জায়গায় উন্নতি করতে হবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here