দিনাজপুর সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনায় বোরো সংগ্রহ অভিযান চলছে

0
3

দিনাজপুর (যুগের চিন্তা ২৪) : শস্য ভান্ডার হিসেবে খ্যাত দিনাজপুর জেলায় চলতি অর্থ বছরে সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনায় বোরো সংগ্রহ অভিযান শুরু হয়েছে। সংশিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, দিনাজপুর জেলার ১৩টি উপজেলায় সিএসডি ও এলএসডি মিলে ২৬টি খাদ্য গুদাম এলাকায় ধারণ ক্ষমতা ৮৭ হাজার মেঃ টন। সরকার চলতি অর্থ বছরে বোরো সংগ্রহ অভিযান দিনাজপুর জেলায় ৯১৮৯৮ মেঃ টন এবং আতব চাল ৪৫৪৫ লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে।

এবার প্রতি কেজি বোরো চালের মূল্য ৩৮ টাকা ও আতব চাল প্রতি কেজির মূল্য ৩৭ টাকা হিসেবে নির্ধারণ করেছে। গত ২ মে তারিখে সরকারিভাবে বোরো সংগ্রহ অভিযান শুরুর ঘোষণা করা হয়। দিনাজপুরে ১৪ মে বোরো চাল সংগ্রহ অভিযান শুভ উদ্বোধন করা হয়।

দিনাজপুর জেলায় ১৩টি উপজেলার অনুকূলে ২৬টি খাদ্য গুদাম এলাকার মধ্যে দিনাজপুর সদর সিএসডি খাদ্য গুদামে ১৬০৫২ মেঃ টন, পুলহাট এলএসডি খাদ্য গুদামে ২২১৩৫ মেঃ টন, বিরল খাদ্য গুদামে ৪৬০৮ মেঃ টন, মঙ্গলপুর খাদ্য গুদামে ২৩২৯ মেঃ টন, সেতাবগঞ্জ খাদ্য গুদামে ১৪১৫৩ মেঃ টন, কাহারোল খাদ্য গুদামে ২৩০৮ মেঃ টন, বীরগঞ্জ খাদ্য গুদামে ৩১৫৯ মেঃ টন, কবিরাজহাট খাদ্য গুদামে ১৯.০০ মেঃ টন, খানসামা খাদ্য গুদামে ১০৮১ মেঃ টন, পাকেরহাট খাদ্য গুদামে ১১০৫ মেঃ টন, চিরিরবন্দর খাদ্য গুদামে ১৮০০ মেঃ টন, রানীরবন্দর খাদ্য গুদামে ১৫০০ মেঃ টন, আমবাড়ী খাদ্য গুদামে ৩৯০১ মেঃ টন, পার্বতীপুর খাদ্য গুদামে ১৪১৩ মেঃ টন, ভবানীপুর খাদ্য গুদামে ১৪১৮ মেঃ টন, মন্মথপুর খাদ্য গুদামে ৩৫৫ মেঃ টন, ফুলবাড়ী খাদ্য গুদামে ৩৩৭০ মেঃ টন, মাদিলা খাদ্য গুদামে ১৬০৯ মেঃ টন, চরকাই খাদ্য গুদামে ২৬৪৪ মেঃ টন, হিলি খাদ্য গুদামে ৩৮২ মেঃ টন, দাউদপুর খাদ্য গুদামে ১৯৪৩ মেঃ টন, ভাদুরিয়া খাদ্য গুদামে ৫৩২ মেঃ টন, ঘোড়াঘাট খাদ্য গুদামে ২১১ মেঃ টন, ডুগডুগি খাদ্য গুদামে ৬৯৩ মেঃ টন, রানীগঞ্জ খাদ্য গুদামে ৬৪৩ মেঃ টন, হরিপাড়াহাট খাদ্য গুদামে ৬৫২ মেঃ টন লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। সরকার আতব চাল দিনাজপুর জেলায় লক্ষ্যমাত্রা দিয়েছে ৪৫৪৫ মেঃ টন। তন্মধ্যে সিএসডি খাদ্য গুদামে ১৩০২ মেঃ টন, পুলহাট খাদ্য গুদামে ২৫৯১ মেঃ টন, সেতাবগঞ্জ খাদ্য গুদামে ৩৫ মেঃ টন, বীরগঞ্জ খাদ্য গুদামে ৩৫ মেঃ টন, কবিরাজহাট খাদ্য গুদামে ৭১ মেঃ টন, চিরিরবন্দর খাদ্য গুদামে ৩৫ মেঃ টন, আমবাড়ী খাদ্য গুদামে ৩৫৭ মেঃ টন, পার্বতীপুর খাদ্য গুদামে ৩৫ মেঃ টন, চরকাই খাদ্য গুদামে ৪৭ মেঃ টন এবং হিলি খাদ্য গুদামে ৩৫ মেঃ টন। দিনাজপুর জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কার্যালয়ের সংগ্রহ শাখার কর্মকর্তা মোঃ হাবিবুর রহমান জানান, দিনাজপুর জেলায় বোরো চাল ৯১৮৯৮ মেঃ টন এর মধ্যে গত ৭ জুন পর্যন্ত ২২৬২৫ মেঃ টন এবং আতব চাল ৪৫৪৫ মেঃ টনের মধ্যে ১০৫৪ মেঃ টন সংগ্রহ করা হয়েছে। আরও জানান, সরকার সারা বাংলাদেশে চলতি অর্থ বছরে ৮ লক্ষ মেঃ টন সিদ্ধ বোরো চাল ও ১ লক্ষ মেঃ টন আতব চাল ক্রয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে। এর মধ্যে রংপুর বিভাগের ৮টি জেলায় ২১৮৬৭৯ মেঃ টন নির্ধারণ করেছে। তন্মধ্যে রংপুরে ১৮,৯১২ মেঃ টন, লালমনিরহাটে ৯২৫৩ মেঃ টন, কুড়িগ্রামে ১৩৬৩৭ মেঃ টন, গাইবান্ধায় ২১৬১৬ মেঃ টন, নীলফামারীতে ১৫৭৯৬ মেঃ টন, পঞ্চগড়ে ১১৮১১ মেঃ টন, ঠাকুরগাঁওয়ে ৩৫৭৫৬ মেঃ টন ও দিনাজপুর জেলায় ৯১৮৯৮ মেঃ টন চাল ক্রয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে।

দিনাজপুর জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মোহাম্মদ আশ্রাফুজ্জামান এ বিষয়ে সাংবাদিকদের বলেন, চলতি অর্থ বছরে সরকার প্রতি কেজি চালের মুল্য ৩৮ টাকা নির্ধারণ করেছে তাতে এ অঞ্চলের মিলারগণ সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন। বর্তমানে চালের বাজার মূল্য স্বাভাবিক রয়েছে। যার ফলে নির্ধারিত তারিখের পূর্বেই স্বল্প সময়ের মধ্যে লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন।

সদর উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মোঃ নুরুন্নবী বলেন, বাজারে চালের মূল্য স্বাভাবিক থাকায় মিলারগণ সহজেই খাদ্য গুদামগুলোতে চাল দিতে পারছেন। আগামী ৩১ আগস্ট পর্যন্ত বোরো সংগ্রহ অভিযান সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনায় চলবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here