1. admin@bangla24bdnews.com : b24bdnews :
  2. robinmzamin@gmail.com : mehrab hossain provat : mehrab hossain provat
  3. maualh4013@gmail.com : md aual hosen : Md. Aual Hosen
  4. tanvirahmedtonmoy1987@gmail.com : shuvo khan : shuvo khan
বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ০২:৪৯ অপরাহ্ন

ঢাকা ছাড়ছেন রীভা, আসছেন বিক্রম দোরাইস্বামী

ডেস্ক সংবাদ
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ১ অক্টোবর, ২০২০
  • ৮০

প্রায় দেড় বছর বাংলাদেশে ভারতীয় হাইকমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন শেষে বৃহস্পতিবার সকালে ভারতে ফিরে যাচ্ছেন রীভা গাঙ্গুলি দাশ। তিনি ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব (পূর্ব) হিসেবে দায়িত্ব নেবেন।

বাংলাদেশে ভারতের পরবর্তী হাইকমিশনার হিসেবে মনোনীত বিক্রম দোরাইস্বামী শনিবার নয়াদিল্লি থেকে রওনা হবেন। ত্রিপুরা হয়ে তিনি বাংলাদেশে আসবেন সোমবার। আগামী সপ্তাহের শেষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের কাছে পরিচয়পত্র পেশ করার মাধ্যমে বাংলাদেশে ভারতীয় হাইকমিশনার হিসেবে তার আনুষ্ঠানিকভাবে দায়িত্ব শুরু করার কথা রয়েছে।

কূটনৈতিক সূত্রে জানা যায়, রীভা গাঙ্গুলি দাশের আরো আগেই নয়াদিল্লিতে ফেরার কথা ছিল। বাংলাদেশ-ভারত যৌথ পরামর্শক সভার (জেসিসি) কারণে তা পিছিয়ে যায়। জেসিসি বৈঠক শেষ করার এক দিন পরই তিনি ভারতে ফিরছেন। অন্যদিকে বাংলাদেশে ভারতের পরবর্তী হাইকমিশনার হিসেবে মনোনীত বিক্রম দোরাইস্বামীও গত মঙ্গলবার নয়াদিল্লি থেকে ভার্চুয়াল মাধ্যমে জেসিসি বৈঠকে ভারতীয় প্রতিনিধিদলের হয়ে অংশ নেন।

ভারতীয় হাইকমিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা ঢাকা থেকে বিদায় নেওয়ার পরে যোগ দেন রীভা গাঙ্গুলি দাশ। তিনি গত বছর ১ মার্চ ঢাকার ভারতীয় মিশনে হাইকমিশনার হিসেবে যোগ দেন। তবে রীভা গাঙ্গুলি ঢাকায় নতুন ছিলেন না। এর আগেও তিনি ঢাকায় দায়িত্ব পালন করে গেছেন। বাংলাদেশের সংস্কৃতি-ইতিহাস তার খুব ভালো করেই জানা ছিলো। সে কারণে ঢাকায় দায়িত্ব পালন করাও তার জন্য অনেকটাই সহজ ছিল।

রীভা গাঙ্গুলি বাংলা ভাষা জানেন। সে কারণে বাংলাদেশের মানুষের কাছে সহজেই পৌঁছাতে পেরেছেন তিনি।

ঢাকা ছাড়ার আগে সাংবাদিকদের সঙ্গে এক মত বিনিময় অনুষ্ঠানে তিনি বলেছেন, ‘গত বছরের মার্চে বাংলাদেশে এসেছি। এখানে কেউ এলে গভীর সম্পর্ক হয়ে যায়। এখানে এলে বাংলাদেশের সঙ্গে যে বন্ধুত্ব ও আতিথেয়তা পাই, পৃথিবীর কোনো জায়গায় সেটা আমরা আর পাই না। এটা অতুলনীয়। আমি আপনাদের মিস করবো।’

রীভা গাঙ্গুলির সময়ে করোনাকালে ভারত থেকে প্রথমবারের মতো পার্সেল ট্রেন বাংলাদেশে আসে। সে সময় অন্ধ্র প্রদেশ থেকে ৩৮৪ টন শুকনো মরিচ পার্সেল ট্রেনে বাংলাদেশে আসে। একইসঙ্গে কলকাতা থেকে প্রথমবারের মতো ভারতীয় পণ্য চট্টগ্রাম বন্দর হয়ে আসাম ও ত্রিপুরায় যায়। বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে যোগাযোগে এটা ছিল মাইলফলক।

রীভা গাঙ্গুলি দাশ ঢাকায় আসার আগে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীনে পরিচালিত আন্তর্জাতিক সাংস্কৃতিক সম্পর্ক কাউন্সিলের (আইসিসিআর) মহাপরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

ফেসবুকে আমরা

এ বিভাগের আরও সংবাদ
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.bangla24bdnews.com কর্তৃক সংরক্ষিত
Customized By NewsSmart