1. admin@bangla24bdnews.com : b24bdnews :
  2. robinmzamin@gmail.com : mehrab hossain provat : mehrab hossain provat
  3. maualh4013@gmail.com : md aual hosen : Md. Aual Hosen
  4. tanvirahmedtonmoy1987@gmail.com : shuvo khan : shuvo khan
রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ১১:২৮ অপরাহ্ন

মেলানিয়ার নগ্ন ছবি ফাঁস করেছিলেন ট্রাম্পের উপদেষ্টা

ডেস্ক রিপোর্ট (বাংলা ২৪ বিডি নিউজ):
  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ২৪৪

মার্কিন ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্পের মডেলিং ক্যারিয়ারের সময়কার নগ্ন ছবি প্রকাশ করার নেপথ্যে রয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের দীর্ঘদিনের মিত্র ও উপদেষ্টা রজার স্টোন। ‘ফ্রি, মেলানিয়া: দ্য আনঅথরাইজড বায়োগ্রাফি’ নামে সম্প্রতি প্রকাশিত একটি বইয়ে এমন দাবি করা হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার বইটি প্রকাশিত হওয়া কথা। বইটির লেখক মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনের কেট বেনেট। বইতে দাবি করা হয়েছে, মেলানিয়া ট্রাম্প এখনও স্বীকার করেন না যে, তার ওই ছবি প্রকাশের পিছনে ডোনাল্ড স্বামী ট্রাম্পের কোনো ভূমিকা ছিল। লেখকের দাবি, হোয়াইট হাউসে পৃথক পৃথক কক্ষে রাত্রিযাপন করেন ট্রাম্প ও মেলানিয়া।

তবে হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেক এসব তথ্যকে মিথ্যা বলে দাবি করা হয়েছে। বইটির একটি কপি ইতোমধ্যে ব্রিটিশ দৈনিক গার্ডিয়ান পেয়েছে। দৈনিকটির অনলাইন সংস্করণে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে। তবে অভিযুক্ত রজার স্টোন গার্ডিয়ানের কাছে এক বিবৃতিতে কেট বেনেটের দাবি প্রত্যাখ্যান করেছেন।

১৯৯৬ সালের এক ফটোশুটের সময় তোলা মেলানিয়া ট্রাম্পের কিছু নগ্ন ছবি ১৯৯৭ সালে ফরাসি একটি ম্যাগাজিনে প্রকাশিত হয়েছিল। ২০১৬ সালের নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের মাত্র তিন মাস আগে ৩০ জুলাই মেলানিয়ার সেসব ছবি ফের প্রকাশ করে মার্কিন দৈনিক নিউইয়র্ক পোস্ট।

তবে যখন ওই ছবিগুলো প্রকাশিত হয় তখন ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচারণায় আনুষ্ঠানিকবাবে কোনো ভূমিকা ছিল না অভিযুক্ত রজার স্টোনের। ২০১৫ সালের আগস্টেই এ কাজ থেকে সরে গেলেও ট্রাম্পের সঙ্গে খুব ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক ছিল তার। তার মধ্যে আসে আরও একটি খারাপ সংবাদ।

২০১৬ সালের মার্কিন নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপ ইস্যুতে তদন্ত শুরু করেন স্পেশাল কনস্যুলার ম্যুলার। তার সেই তদন্তে বাধা সৃষ্টির জন্য নভেম্বরের মাঝামাঝি রজার স্টোনকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়। এখন তিনি এ অপরাধে শাস্তির অপেক্ষায় রয়েছেন।

অপরদিকে আগামী বছর যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। এরই মধ্যে ‘ইউক্রেন কেলেঙ্কারি’ নিয়ে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিশংসন তদন্ত চলছে। এরই মধ্যে রিপাবলিকান দলীয় প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প আগামী নির্বাচনের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন। তার বিরুদ্ধে নারীসঙ্গ নিয়ে বেশ কিছু অভিযোগ রয়েছে।

অনেকে দাবি করেন, মেলানিয়ার সঙ্গে ট্রাম্প যখন বৈবাহিক সম্পর্কে জড়িত তখনও তিনি একজন প্লেবয় মডেলের সঙ্গে রাত্রিযাপন করেছেন। এছাড়া পর্নো তারকা স্টর্মি ডেনিয়েলের সঙ্গে যৌন সম্পর্ক আর সেই সম্পর্ক ধামাচাপার অভিযোগও উঠেছিল তার বিরুদ্ধে। তবে ট্রাম্প এসব অভিযোগ বরাবরই অস্বীকার করেছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের আগামী প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে কেট বেনেট তার বইয়ে মেলানিয়া এবং তার দাম্পত্য সম্পর্ক নিয়ে অনেক কিছু লিখেছেন। তিনি মেলানিয়ার নগ্ন ছবি প্রকাশ সম্পর্কে লিখেছেন, ‘মেলানিয়া ট্রাম্পের সন্দেহ তার সেসব ছবি প্রকাশ করেছেন রজার স্টোন।’

তবে এর জবাব চেয়ে ব্রিটিশ দৈনিক গার্ডিয়ানের কাছে একটি ইমেইল পাঠিয়েছেন হোয়াইট হাউসের প্রেস সেক্রেটারি স্টেফানি গ্রিশাম। তার ভাষ্যমতে বেনেটের এমন দাবি নিয়ে বিস্ময় প্রকাশ করে মেলানিয়া ট্রাম্প বলেছেন, ‘কেটের সঙ্গে বিশ্বস্ততার সঙ্গে কাজ করেছি। আমরা মনে করি, তিনি সততার সঙ্গে তার কাজ করবেন।’

ফেসবুকে আমরা

এ বিভাগের আরও সংবাদ
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.bangla24bdnews.com কর্তৃক সংরক্ষিত
Customized By NewsSmart