1. admin@bangla24bdnews.com : b24bdnews :
  2. robinmzamin@gmail.com : mehrab hossain provat : mehrab hossain provat
  3. maualh4013@gmail.com : md aual hosen : Md. Aual Hosen
  4. tanvirahmedtonmoy1987@gmail.com : shuvo khan : shuvo khan
শনিবার, ০৪ জুলাই ২০২০, ০৯:৪৪ অপরাহ্ন

সিদ্ধিরগঞ্জে গার্মেন্টস কর্মকর্তাকে মারধর, ৩ কারখানা বন্ধ ঘোষণা

স্টাফ রিপোর্টার (বাংলা ২৪ বিডি নিউজ):
  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ২ জুন, ২০২০
  • ৮০

কাজে যোগদানকে কেন্দ্র করে কতিপয় শ্রমিক দ্বারা সিদ্ধিরগঞ্জে গার্মেন্টস কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাক ও ৩ নিরাপত্তা প্রহরীকে মারধরের ঘটনায় অনির্দিষ্টকালের ৩টি কারখানা বন্ধ  ঘোষনা করেছেন মালিক পক্ষ। কারখানা ৩ টি হচ্ছে আহসান এ্যাপারেলস, আহসান নিটিং ও একে ফ্যাশন। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার সকালে সিদ্ধিরগঞ্জে।

জানা গেছে, লকডাউনের সময় গার্মেন্টস লে-অফ ছিল। পরবর্তীতে সীমিত আকারে গার্মেন্টস চালু করা হয় । লকডাউনের সময় এবং কারখানা চালু করার পরও যে সকল শ্রমিক কর্মচারী কাজে যোগদান করেনি তাদের বেসিক ৬০% হারে মালিক পক্ষ দিয়ে আসছে। গার্মেন্টস পুরোপুরি চালু না হওয়ায় ৩০০ শ্রমিক কর্মচারী কাজে যোগদান করতে পারেনি। তবে গার্মেন্টের ইউনিট পুরো পুরি চালু হলে পর্যায়ক্রমে সকল শ্রমিক কর্মচারীকে কাজে পূর্নবহালের ঘোষণা দিয়েছে মালিক পক্ষ। কিন্তু কতিপয় উছৃঙ্খল শ্রমিকের ইন্ধনে যারা কাজে যোগদান করেনি তাদেরকে ছাঁটাই করা হবে এ খবর ছড়িয়ে দেয় সাধারন শ্রমিক কর্মচারীদের মাঝে। এ নিয়ে শ্রমিকদের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

মঙ্গলবার (২ জুন) সকালে ৩ টি গার্মেন্টর ২২০০ শ্রমিকদের মধ্যে ১৯০০, শ্রমিক কর্মচারী কাজে যোগদান করে। কিন্তু উছৃঙ্খল শ্রমিকরা আহসান এ্যাপালেস এর সামনে জড়ো হয়ে গার্মেন্টের কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাককে গামেন্টেস এর সামনে পেয়ে সকাল ১০ টার দিকে বেধড়ক মারধর করে মোবাইল ও মানিব্যাগ ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এ সময় উপস্থিত শিল্প পুলিশের কয়েক সদস্য দাঁড়িয়ে এ দৃশ্য দেখলেও তারা তাকে শ্রমিকদের রোষানল থেকে বাঁচাতে এগিয়ে আসেনি বলে অভিযোগ রয়েছে। বিক্ষুদ্ধ শ্রমিকরা একই মালিকের অপর গার্মেন্টস একে ফ্যাশন এর সামনে গিয়ে ৩ নিরাপত্তা প্রহরীকে মারধর করে। পরে শিল্প পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ আইনুল হক এর নেতৃত্বে একদল পুলিশ এবং সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। গামের্›টস পরিচালক আব্দুর রাজ্জাক বলেন শ্রমিকদের কোন বেতন ভাতা ও বোনাস বকেয়া নেই, যে সকল শ্রমিক কর্মচারী কাজে যোগ দেয়নি তাদেরকে আমরা ৬০% হারে বেতন দিয়েছি বোসাসও দিয়েছি , তিনি আরও বলেন, যেহেতু গার্মেন্টস পুরোপুরি চালু হয়নি তাই ৩০০ শ্রমিক কর্মচারীকে আমরা পর্যায়ক্রমে ইউনিট চালু করবো এবং নেওয়ার একধিকবার আশ্বাস দেওয়ার পরও কতিপয় উছৃঙ্খল শ্রমিক আমার উপর অতর্কিত ভাবে হামলা করেছে।

এ ব্যাপারে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে অন্যান্য পরিচালকদের সাথে আলাপ আলোচনা সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে পরিচালক আব্দুর রাজ্জাক জানান। দুপুর ১২ টার দিকে গার্মেন্ট পরিচালক রুবাইয়াত শিল্প পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ আইনুল হকের সামনে শ্রমিকদের জানিয়ে দেন গার্মেন্টস অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ থাকবে। গার্মেন্টস এলাকায় নাশকতা এড়াতে শিল্প পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

ফেসবুকে আমরা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরও সংবাদ
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব www.bangla24bdnews.com কর্তৃক সংরক্ষিত
Customized By NewsSmart